Advertisements

ইরাকের রাজধানীতে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার জেনারেল সোলেইমানির হত্যাকাণ্ডে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সোলেইমানি হত্যাকাণ্ডের পর ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে এক টেলিফোনালাপে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভের বরাতে ইরানের সংবাদমাধ্যম পার্স ট্যুডে জানিয়েছে, সোলেইমানি হত্যার পর উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলাপ করতে ম্যাক্রোঁকে ফোন করেন পুতিন। ইরানের শীর্ষ জেনারেলের হত্যাকাণ্ডে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এমন পদক্ষেপে মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা আরও বাড়বে।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের আগে রুশ সরকারের অন্যান্য কর্মকর্তারাও যুক্তরাষ্ট্রের এই হামলা ও হত্যকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন। শুক্রবার রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্যে শক্তির ভারসাম্য পরিবর্তন করতে চায়।

রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির প্রধান কনস্তান্তিন কাসাচোভ বলেছেন, মার্কিন দূতাবাসে ইরাকি জনগণের হামলার প্রতিশোধ নিতে যুক্তরাষ্ট্র জেনারেল সোলেইমানিকে হত্যার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তার চেয়ে খারাপ দৃশ্যপট আর কিছুই হতে পারে না

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে শুক্রবার ভোররাতে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলেইমানিকে হত্যা করে মার্কিন সেনারা। ওই হামলায় ইরাকের ইরান সমর্থিত মিলিশিয়া গোষ্ঠী হাশেদ আশ-শাবির উপ-প্রধান আবু মাহদি আল-মুহানদিসসহ ১০ জন নিহত হন।

By Abraham

Translate »