Advertisements

নির্বাচনী হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগ করে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের প্রার্থিতা বাতিল চেয়ে রিট করেছেন আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দীন চৌধুরী মানিক।

রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় তিনি বাদী হয়ে রিটটি করেন।

রিট আবেদনের ওপর সোমবার বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হতে পারে।

রিট আবেদনে তাবিথের পাশাপাশি প্রধান নির্বাচন কমিশনার, সরকারসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

তাবিথের সম্পদের তথ্য গোপনের খবর সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে এলে তার প্রার্থিতা বাতিলে এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশনে আবেদন জমা দেন বিচারপতি মানিক।

এ সময় তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বরাবর এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ জমা দেন।

অভিযোগ দেওয়ার পরও নির্বাচন কমিশন কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় হাইকোর্টে রিট করেছেন বলে জানান বিচারপতি মানিক।

বিচারপতি মানিক জানান, সিঙ্গাপুরে এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) প্রাইভেট কোম্পানি লিমিটেড নামে একটি কোম্পানিতে তিনজনের শেয়ার রয়েছে। এই তিনজন শেয়ারহোল্ডারের একজন তাবিথ আউয়াল। অন্য দু’জন তার সহযোগী।

বিচারপতি মানিক আরও বলেন, তাবিথসহ তিনজন মিলে এ কোম্পানির সব শেয়ারের মালিক হয়েছেন। এ কোম্পানির মূল্য দেখানো হয়েছে ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ওপর। এনএফএম এনার্জি (সিঙ্গাপুর) প্রাইভেট কোম্পানির কথা তাবিথ আউয়াল তার হলফনামায় উল্লেখ করেননি। আইন হচ্ছে নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী ও তার পরিবারের সব সদস্যের সব সম্পদ হলফনামায় দেখাতে হবে। কিন্তু তাবিথ আউয়াল তা দেখাননি।

বিচারপতি মানিক বলেন, সোমবার বিচারপতি জেবিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে রিটটির শুনানি হতে পারে। রিটের পক্ষে শুনানি করবেন আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দিকী ও আব্দুল মতিন খসরু।

By Abraham

Translate »