Advertisements

বাংলাদেশ প্রতিদিন : চার বছর পর তার কীর্তিতে আরেকবার অবাক সবাই। কারণ, এই চার বছরে ৮৭ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেছে ১০ বছরের আর্য পারমানা। ২০১৬ সালে অর্থাৎ চার বছর আগে তার ওজন ছিল ১৫০ কেজি। স্থূলাকার কিশোর হিসেবে গোটা বিশ্বকে বিস্মিত করেছিল সে।

চার বছরে এই বিপুল পরিমাণ ওজন ঝরিয়ে ফেলেছে ইন্দোনেশিয়ার কিশোর। নেটিজেনরা আর্যর সঙ্গে পরিচিত হয়েছেন অনেক আগেই। তার স্থূলাকার শরীরের ছবি ছড়িয়ে পড়েছিল নেটদুনিয়ায়।

এবার সামনে এসেছে ওজন কমানোর পর তার বর্তমান চেহারা। যা এককথায় অবিশ্বাস্য। কারণ এতখানি ওজন কমিয়ে ফেলার কাজটা নেহাত সহজ ছিল না।
তবে, কোনো অস্ত্রোপচার নয়, শুধু নির্দিষ্ট ডায়েট মেনে আর শরীরচর্চা করেই এমন অসাধ্য সাধন করে দেখিয়েছে আর্য। একটা সময় যার ওঠা-বসা করাটাই ছিল চ্যালেঞ্জের ব্যাপার, সে আজ আর পাঁচটা কিশোরের মতোই সুস্থ-স্বাভাবিক।

জানা গেছে, প্রথমে কেবল ওঠা-বসা দিয়ে শুরু হয়েছিল আর্যর শরীরচর্চা। এরপর ধীরে ধীরে ব্যায়াম করতে থাকে সে। এখন লোহাও তুলতে পারে আর্য। যদিও শিশু অবস্থায় এমন স্থূলাকার চেহারা ছিল না তার।

আট বছর বয়স থেকে হঠাৎ করেই বাড়তে থাকে তার ওজন। ১০ বছর বয়সে চেহারা একেবারে অস্বাভাবিক হয়ে ওঠায় গোটা দুনিয়ার নজরে পড়ে সে। তারপর ইন্দোনেশিয়া সরকার আর্যর চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়। আর চার বছরে ইচ্ছাশক্তিতে ভর করেই ৮৭ কেজি ওজন কমিয়ে বিশ্বকে চমকে দিয়েছে সে।

ওজন কমানোর পর আর্যর অতিরিক্ত মেদের ভাঁজ অস্ত্রোপচার করে সরিয়েছেন চিকিৎসকরা। ১৪ বছরের কিশোর চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল, মনের জোর থাকলে অসম্ভব কিছুই নয়।

By Abraham

Translate »