Advertisements

দীর্ঘ এক বছরের অপেক্ষা শেষে লেখক-পাঠক-প্রকাশকদের নিয়ে ফের শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা- ২০২০’। আজ রোববার থেকে সাহিত্যপ্রেমীদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠবে রাজধানীর বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণ।

এরইমধ্যে বইমেলার সব আয়োজন শেষ। বর্ণিল সাজে সেজেছে মেলা চত্বর। মেলা ঘিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে শুরু করে দোয়েল চত্বর পর্যন্ত বিরাজ করছে উৎসবের আবহ। রোববার বিকেল ৩টায় বইমেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের মেলা উৎসর্গ করা হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী ও সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত থাকবেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করবেন একাডেমির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে মেলা পরিদর্শন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরপরই সর্বসাধারণের জন্য খুলে যাবে মেলার প্রবেশপথ। এবারে বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও একাডেমি সংলগ্ন ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রায় ৮ লাখ বর্গফুট জায়গা জুড়ে। সৃজনশীল প্রকাশনা সংস্থাগুলো থাকবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে। এখানে মোট ৪৩৪ প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানকে ৬৯৮টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে বাংলা একাডেমি অংশে ১২৬টি প্রতিষ্ঠানকে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১৭৯টি ইউনিট। পাশাপাশি বাংলা একাডেমিসহ ৩৩টি প্রকাশনা সংস্থাকে দেয়া হয়েছে ৩৪টি প্যাভিলিয়ন। সব মিলিয়ে এবারের মেলায় মোট ৫৬০টি প্রতিষ্ঠানকে ৮৭৩টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

লিপ ইয়ার হওয়ায় এবারের মেলা চলবে ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে বইমেলা। অন্যদিকে ছুটির দিন মেলা চলবে বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। এছাড়া ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গণ খোলা থাকবে।

By Abraham

Translate »