আন্তর্জাতিক

করোনাভাইরাসের লড়াইয়ে জিনপিংকে সহায়তার প্রস্তাব মোদির

Advertisements

চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ৮ শতাধিক মানুষের মৃত্যুর ঘটনায় শোক ও সংহতি জানিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কাছে চিঠি লিখেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। চিঠিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে চীনকে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

রোববার ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে বলছে, চীনের মূল ভূখণ্ডে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও ৮১১ জনের প্রাণহানির ঘটনায় প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কাছে এক চিঠি লিখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। চিঠিতে প্রাদুর্ভাবে প্রাণহানির ঘটনায় শোক জানিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চীনকে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছেন ভারতের এই প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া চীনের উহানে আটকা ভারতীয় ৬ শতাশিক শিক্ষার্থীকে দেশে ফেরত পাঠানোর কাজে সহায়তা করায় শি জিনপিংকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মোদি। গত সপ্তাহে এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ দুটি ফ্লাইটে উহান থেকে ভারতীয় শিক্ষার্থীদের ফিরিয়ে আনা হয়।

দেশটির সরকারি সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেয়া স্বাক্ষাৎকারে ভারতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েইডং বলেন, চীনে ভারতীয় নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও নিরাপত্তায় ভারতের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত চীন। যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, বাংলাদেশ-সহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ ইতোমধ্যে করোনা বিধ্বস্ত চীন থেকে নাগরিকদের ফিরিয়ে নিয়েছে।

কেরালায় ইতোমধ্যে উহান ফেরত তিনজনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এই তিনজনকে কেরালার আইসোলেশন সেন্টারে রাখা হয়েছে। তাদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির চিকিৎসকরা।

গত ডিসেম্বরে উহানের একটি সামুদ্রিক খাবারের বাজার থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৪৬৩ জন। এ ভাইরাসে মারা গেছেন ৮১৩ জন এবং সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরে গেছেন ২ হাজার ১৫২ জন।