Advertisements

ইতিহাস গড়ে পুরো বাংলাদেশকে আনন্দে ভাসিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। পচেফস্ট্রুমে আজ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো যেকোনো পর্যায়ের ক্রিকেটে বিশ্বজয়ের উচ্ছ্বাসে ভেসেছে বাংলাদেশ। এই আনন্দ মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, মেহেদী হাসান মিরাজদের না ছুঁয়ে পারে! অনুজদের বিশ্বজয়ের আনন্দে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অভিনন্দন জানিয়েছেন তাঁরাও।

নিজের ফেসবুক পেজে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা লিখেছেন, ‘অভিনন্দন বাংলাদেশ। বিশেষ করে অভিষেক দাস, রকিবুল, শরিফুল, ইমন (পারভেজ) এবং অন্য সব খেলোয়াড় ও কোচিং দলের সদস্যদের। আকবর ইউ বিউটি! শুধু আবেগটা কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হয় সেটা শেখো। কী অসাধারণ অর্জন! বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের জন্য কী দারুণ এক মুহূর্ত!’ অভিনন্দনের পাশাপাশি যুবাদের মনে করিয়ে দিয়েছেন ভবিষ্যতের দায়িত্বও মনে করিয়ে দিয়েছেন মাশরাফি, ‘ছেলেদের বলছি, অনেক অনেক দূর যেতে হবে তোমাদের। আশা করি ভবিষ্যতে তোমরা আরও অনেক বেশি কিছু নিয়ে আসবে। এই মুহূর্তটা উপভোগ করো। অভিনন্দন, মি. ক্যাপ্টেন আকবর। অভিনন্দন বাংলাদেশ।’

মুশফিকুর রহিম তো যুবারা ফাইনালে ওঠার পরই ফেসবুকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। জানিয়েছিলেন শুভকামনা। আজ ফাইনালে যুবাদের জয়ের পর মুশফিকের গর্ব যেন আর বাঁধ মানছিল না, ‘কোনো সংশয় ছাড়াই বলতে পারি বাংলাদেশের ক্রিকেটার হওয়া আমার জীবনের সবচেয়ে বড় অর্জন। এই ছেলেরা আমাকে অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি গর্বিত করেছে। সুপারস্টারদের অভিনন্দন।’

আকবর আলী-তৌহিদ হৃদয়-রকিবুল হাসান-পারভেজ হোসেনদের বিশ্বজয়ী এই দলের আগে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা সাফল্য ছিল নিজ মাটিতে ২০১৬ বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে খেলা। অনুজদের বিশ্বজয়ের আনন্দে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের পাশে ‘চ্যাম্পিয়ন’ লেখা ছবি দিয়ে মিরাজ লিখেছেন, ‘আমাদের ছেলেরা করে দেখিয়েছে! অভিনন্দন বাংলাদেশ।’

বিশ্বজয়ের মুহূর্তের ভিডিও দিয়ে সৌম্য সরকার শুধু আনন্দটা প্রকাশ করেছেন এভাবে, ‘বাংলাদেশ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন!’ ২০১৬ যুব বিশ্বকাপে আলো ছড়ানো সাইফউদ্দিনও বিশ্বজয়ের মুহূর্তের ভিডিও দিয়ে লিখেছেন, ‘ইয়েস! আমরা করে দেখিয়েছি! বাংলাদেশের তরুণ বাঘেদের অভিনন্দন। আমরা এখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন!’

আর সাব্বির রহমান লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেটকে অভিনন্দন। বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন!’

By Abraham

Translate »