Advertisements

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার প্যারলে মুক্তির বিষয়ে বিএনপি মহাসচিবের সঙ্গে ফোনে আলোচনা হয়েছে, তিনি প্রধানমন্ত্রীকে আবেদনের বিষয়টি জানাতে বলেছেন, সেটি প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়েছে।

এদিকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা নিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতারা মিথ্যাচার করছেন।

গত দুই বছর ধরে দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ড ভোগ করছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। তার মুক্তির দাবিতে নানা কর্মসূচি পালন করে আসছেন দলটির নেতাকর্মীরা। এখনো তাকে মুক্ত করতে না পারায় প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে ভাবছেন তারা।

শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব টেলিফোনে তার সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে পরিবার বা দলের পক্ষ থেকে কোনো লিখিত আবদেন জানাননি বিএনপি নেতারা।

বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে এখনো লিখিতভাবে বিএনপি কিংবা খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো আবেদন করা হয়নি। এটা রাজনৈতিক মামলা হলে সরকারের বিষয় ছিল। যেহেতু দুর্নীতির মামলা সেহেতু এটা আদালতের বিষয়।

তিনি জানান, প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে বেগম জিয়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে পারেন। বেগম জিয়ার সুচিকিৎসার বিষয়টি সরকারের সুনজরে রয়েছে। তার শারীরিক অবস্থার বিষয়ে দল যেভাবে বলছে, চিকিৎসার ব্যাপারে চিকিৎসকরা সেভাবে বলছেন না।

এদিকে সকালে, নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে ষড়যন্ত্র করে আটক করে রাখা হয়েছে। তাদের পর্বতসম মিথ্যাচারের জবাব জনগণকে একদিন দিতেই হবে।

নানা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বেগম জিয়ার জামিন বাধাগ্রস্ত করে তাকে আটকে রেখেছে সরকার।

By Abraham

Translate »