Advertisements

দুর্নীতির দায়ে কারারুদ্ধ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তি চাইলে তাকে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করতে হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া।

শুক্রবার বিকেলে সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের গাইবান্ধা জেলা ছাত্র কল্যাণ সমিতির দ্বিতীয় পুনর্মিলনী, নবীনবরণ, বিদায় ও কৃতী সম্মাননা অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে একমাত্র ক্ষমা করতে পারেন রাষ্ট্রপতি। সাংবিধানিক ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির আছে; সেই বিধান অনুযায়ী তার কাছে ক্ষমার আবেদন করতে পারেন খালেদা জিয়া।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর হাতে ক্ষমতা নেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়ার। রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়া ছাড়া তাকে মুক্তি পেতে হলে আইনি লড়াই করে সুপ্রিম কোর্ট থেকে মুক্তি নিতে হবে।

ডেপুটি স্পিকার বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন রাজনৈতিক বন্দি নন। তাকে আওয়ামী লীগ গ্রেপ্তার করেনি এবং তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলাও দেয়নি।

তিনি আরো বলেন, ‘ওয়ান ইলেভেন’ এর কুশীলবরা তো বেগম খালেদা জিয়ার লোক। বিএনপি কি ভুলে গেছে, তারা সংবিধান লঙ্ঘন করে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ইয়াজউদ্দিনের হাতে ক্ষমতা দিয়েছিল। তারাই তো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। সেই মামলার রায় দিয়েছেন কোর্ট।

অনুষ্ঠানে গাইবান্ধা জেলা ছাত্র কল্যাণ সমিতির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

By Abraham

Translate »