Advertisements

চলতি মৌসুমে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে কাঁচাপাকা বরই। মৌসুম চলে গেলে বরই পাওয়া যায় না। কিন্তু বরই পাকার পর তা শুকিয়ে নিয়ে সংরক্ষণ করা যায়। পরের বছরের যে কোনও সময় এই শুকনো বরই দিয়ে মজাদার আচার বানিয়ে খেতে পারেন।

বরই আচার বানানো খুব সহজ। যদিও প্রায় অনেকেই জানেন কিন্তু যারা বানাতে জানে না তাদের জন্য দেয়া হলো এই রেসিপি। দেখে নিন কিভাবে টক-ঝাল-মিষ্টি আচার বানাবেন বরই দিয়ে।

যা যা লাগবে 

শুকনো বরই আধা কেজি, সরিষার তেল আধাকাপ, দারচিনি ২ টুকরা, আস্ত পাঁচফোড়ন ১ টেবিল চামচ, আখেরগুড় আধাকাপ, মরিচগুঁড়া ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, ভিনেগার ১/৪ কাপ, মুড়ির গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, ভাজা জিরার গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, ভাজা ধনিয়ার গুঁড়া ১ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

শুকনো বরই কিনে আনতে পারেন অথবা নিজেই রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ করতে পারেন। বরই ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। পানিতে সেদ্ধ করে নিন শুকনা বরই। ১০ মিনিট উচ্চতাপে সেদ্ধ করার পর ছেঁকে উঠিয়ে ফেলুন।
প্যানে সরিষার তেল, পাঁচফোড়ন ও দারচিনি দিয়ে এক মিনিট ভেজে নিন।

এবার প্যানে সেদ্ধ করা বরই দিয়ে দিন। আখেরগুড় অথবা চিনি দিন। মরিচগুঁড়া এবং লবণ দিয়ে নেড়েচেড়ে নিন। গুড় গলে পানি পানি হয়ে গেলে ভিনেগার দিন। পানি খানিকটা শুকিয়ে আসার পর চামচের পেছনের অংশ দিয়ে বরই ভেঙে দিন।

ভাজা মুড়ির গুঁড়া, ভাজা জিরার গুঁড়া ও ভাজা ধনিয়ার গুঁড়া দিয়ে নাড়তে থাকুন। ৫ থেকে ৭ মিনিট জ্বাল করার পর নামিয়ে ঠাণ্ডা করুন। খুব বেশি শুকনা করে নামাবেন না। কারণ ঠাণ্ডা হলে এটি আরও খানিকটা শুকিয়ে আসবে। পরিষ্কার ও মুখবন্ধ বয়ামে আচার সংরক্ষণ করুন। ২ বছর পর্যন্ত ফ্রিজে রেখে খেতে পারবেন বরইয়ের আচার।

By Abraham

Translate »