জানাঅজানা

বিয়ের সাজে ঘুরে বেড়ায় কনের আত্মা!

Advertisements

আমেরিকান আর্কিটেক্ট ব্রুস প্রিন্সের নকশায় ১৮৮৭-১৮৮৮ সালে নির্মিত হয়েছিল বিলাশবহুল হোটেল ‘ব্যানফ স্প্রিং’। কানাডার সবচেয়ে বিলাশবহুল এই হোটেলটিকে বলা হয় ‘ভুতুরে হোটেল’।

হোটেলটিকে ঘিরে রয়েছে একাধিক রহস্যময় গল্প। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আগে ৮৭৩ নম্বর রুমে ছিল একটি পরিবার। কিন্তু একদিন হঠাৎ করেই তারা সবাই খুন হন। কিভাবে খুন হন তা উদ্ধার হয়নি।

সেই ঘটনার পর থেকে শুরু হয় সব ভুতুড়ে কাণ্ড। রাতে আসবাবপত্র টানাটানির শব্দ, ছোট বাচ্চার কান্না, স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া এমন অনেক কিছুই ঘটতে থাকে।

হোটেল কর্তৃপক্ষ কোনো সুরাহা করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত ওই রুমের কপাট আটকে দেয়া হয়। কক্ষটির জানালাগুলোও ঢেকে দেয়া হেয়। কিন্তু তাতেও সমাধান হয়নি।

কথিত আছে, হোটেলটিতে বিয়ের সময় এক দুর্ঘটনায় একজন কনের মৃত্যু হয়। কনের বিয়ের সাদা গাউন পরা অবস্থায় তার স্বামীর আগমন পথের সিঁড়িতে মোমবাতি জ্বালাচ্ছিল। গাউনে একটা মোমের আগুন লেগে যায়। মেয়েটি পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত লাগে এবং মারা যায়। তারপর থেকে বিয়ের গাউন পরা অবস্থায় তার আত্মাকে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায় হোটেলের বিভিন্ন স্থানে।

সূত্র: ইন্ডিয়া ইমাজিন।