Advertisements
বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের জামছড়ি মুখ পাড়ায় দুর্বৃত্তের ব্রাশফায়ারে ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বাচনু (৬০) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন রাজবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য অং প্রু।
ঘটনার সময় আতঙ্কে বাখইয় (৬১) নামে এক স্থানীয় স্ট্রোক করে মারা গেছেন।
আহতরা হলেন- মংক্য চিং (২৫), ক্য প্রু মং (৪০), আদাসে (৩২), লা মং সিং (৩৫), সাবেক মেম্বার উ চ থোয়া (৬০)। এরা সবাই একই এলাকার বাসিন্দা।
শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় জামছড়ি মুখ পাড়ার একটি চায়ের দোকানে আড্ডারত অবস্থায় তাদের উপর ব্রাশফায়ার করা হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বিভিন্ন জায়গা থেকে এসে চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন তারা। এ সময় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গ্রুপের কয়েকটি দল এসে এলোপাথাড়ি ব্রাশফায়ার করে। গুলিতে ঘটনাস্থলেই আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়। এদিকে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে আহতদের মধ্যে এক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।
এছাড়াও এ ঘটনার সঙ্গে পাহাড়ের কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জড়িত সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেননি পুলিশ এবং ওই এলাকার জনপ্রতিনিধিরা।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সেটা আমরা তদন্ত করে দেখছি।

By Abraham

Translate »