Advertisements
দেশের মানুষের জানমাল রক্ষা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ পুলিশ। এরইমধ্যে গণমুখী পুলিশি সেবা নিশ্চিত করতে বেশ কিছু ই-সেবা চালু করে সংস্থাটি। 
বাংলাদেশ পুলিশ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন, অপরাধীদের গ্রেপ্তার, মামলা গ্রহণ, বিচারে সহায়তা, সড়ক শৃঙ্খলা ও ভিআইপি নিরাপত্তা-প্রটোকলসহ অনেক দায়িত্ব পালন করে। করে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কাজও।
বাংলাদেশ পুলিশ জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জনগণকে সচেতন করে তোলা, ট্রাফিক আইন মেনে চলতে শিক্ষার্থীসহ অন্যদের আগ্রহী করে তোলা, হেলমেট পরে মোটরসাইকেলে ওঠা – ইত্যাদি বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে কার্যক্রম গ্রহণ করে থাকে।
আজকের প্রতিবেদনে থাকছে, ঘরেই বসে জনগণ যেসব সেবাগুলো পুলিশ থেকে পাবে। চলুন জেনে নেই :
ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস ৯৯৯ 
২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর এই সেবা চালু হয়। পুলিশের অধীনে পরিচালিত একটি জরুরি কল সেন্টার হলো ৯৯৯ জরুরি সেবা। এখান থেকে শুধু পুলিশ নয়, জরুরি প্রয়োজনে ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স সেবাও পাওয়া যায়। দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে যে কেউ এই সেবার জন্য ফোন করতে পারেন। সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘণ্টা চালু রয়েছে এ সেবা।
মোবাইল অ্যাপ
‘বিডি পুলিশ হেল্পলাইন’ অ্যাপটি গতবছর চালু করা হয়। সেখানে নাম প্রকাশ না করেও অভিযোগ বা মতামত জানানো যায়। এছাড়া সেখানে সব থানার সঙ্গে যোগাযোগের নম্বরও আছে।
হ্যালো সিটি অ্যাপ
‘সিটি’ মানে হচ্ছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম’ ইউনিট। তাদেরকে তথ্য দেয়ার জন্য একটি মোবাইল অ্যাপ চালু করা হয়েছে। এই অ্যাপ সম্পর্কে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ বলছে, ‘জঙ্গিবাদ/উগ্রবাদ, সাইবার ক্রাইম, বোমা/ বিস্ফোরক/ অস্ত্র/মাদক, আন্তঃদেশীয় অপরাধ/জালিয়াতি, মোস্ট ওয়ান্টেড ব্যক্তি সর্ম্পকে নিজের পরিচয় গোপন রেখে পুলিশকে তথ্য প্রদান করা যাবে।’
পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ
পুলিশ সদরদপ্তরে স্থাপিত ‘আইজিপি’স কমপ্লেন সেল’ ২৪ ঘণ্টাই চালু থাকে। পুলিশ সদস্যের যে কোনো অপেশাদার ও অনৈতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে এই সেলকে জানানো যায়। সরাসরি, কুরিয়ার সার্ভিস কিংবা ডাকযোগে তথ্য জানানো যায়। এছাড়া ০১৭৬৯-৬৯৩৫৩৫ ও ০১৭৬৯-৬৯৩৫৩৬ মোবাইল নম্বরে এবং complain@police.gov.bd এই ই-মেলেও অভিযোগ জানানো যায়।
ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার
নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুদের আশ্রয় বা থাকার জন্য ঢাকার তেজগাঁও থানা চত্বরে এই সেন্টারটি স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি ১০টি বেসরকারি সংস্থা সেখানে আইনি সহায়তাসহ অন্যান্য কাজ করছে।
অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট
চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে ‘পুলিশ ক্লিয়ারেন্স’ সার্টিফিকেট দেয়া শুরু করেছে পুলিশ। ঐ সময় পুলিশ সদর দপ্তরে থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, এখন থেকে জনগণ ঘরে বসেই অনলাইন ‘পুলিশ ক্লিয়ারেন্স’ সেবা পাবেন। ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করে পরে তা সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে সংগ্রহ করতে হবে। ফরম পেতে যেতে হবে এই ঠিকানায়- http://pcc.police.gov.bd/en/।
প্রবাসী সহায়তা সেল
বিদেশে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকরা দেশে কোনো সমস্যার সমাধানে পুলিশের সাহায্য চাইতে পারেন। এ জন্য পুলিশ সদরদপ্তরে ‘প্রবাসী সহায়তা সেল’ চালু আছে। ফোনে (+৮৮ ০১৭৬৯ ৬৯০০১৯) কিংবা ইমেলে expatriatehelp@police.gov.bd যোগাযোগ করা যাবে।

By Abraham

Translate »