Advertisements

বিশ্ব যখন হন্যে হয়ে নভেল করোনাভাইরাস নিরাময়ের উপায় খুঁজছে তখন ভারতের আসাম রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি দলীয় এক বিধায়ক ভা্ইরাস নিরাময় করতে ‘গোমূত্র’ ও ‘গোবর’ ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন।

সোমবার আসামের রাজ্য বিধানসভায় ওই বিজেপি বিধায়কের এমন পরামর্শে সবাই স্তম্ভিত হয়ে পড়েন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

গোমূত্র ও গোবর ক্যান্সারের মতো প্রাণঘাতী রোগ নিরাময়ে সহায়তা করে বলে দাবি করেন সুমন হরিপ্রিয়া নামের ওই বিধায়ক।

বিধানসভার বাজেট অধিবেশনে আসাম থেকে বাংলাদেশে গরু পাচার নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “গোবর যে অনেক উপকারী এটা আমরা সবাই জানি। যেমন কোথাও গোমূত্র ছিটানো হলে ওই জায়গা পবিত্র হয়ে যায়, আমি বিশ্বাস করি করোনাভাইরাস (রোগ) সারাতেও গোমূত্র ও গোবর দিয়ে এমন কিছু করা যাবে।”

বাংলাদেশের অর্থনীতি ভারত, বিশেষ করে আসাম থেকে পাচার হওয়া গরুর ওপর নির্ভর করে শক্তিশালী হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

“বাংলাদেশ বিশ্বে গরুর মাংস রপ্তানিকারী দ্বিতীয় শীর্ষস্থানীয় দেশ। এগুলোর সবই আমাদের গরু। আগের কংগ্রেস সরকার গরু পাচার রোধে কিছুই করেনি।

“এখন গরু পাচার করতে প্রধানত নদীপথ ব্যবহার করা হচ্ছে,” এমন মন্তব্য করে তিনি রাজ্যের গবাদিপশু বাজারের ওপর নজরদারি করতে রাজ্যটির বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

ভারতজুড়ে কভিড-১৯ এর লক্ষণ দেখা গেছে সন্দেহে ৩৭ জনকে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে এবং সন্দেহভাজন ২৫ হাজার ৭৩৮ জনকে সামাজিক নজরদারিতে রাখা হয়েছে বলে এনডিটিভি জানিয়েছে।

By Abraham

Translate »