Advertisements

নিরাপত্তাজনিত কারণে বাংলাদেশ দল আগের দুই দফায় পাকিস্তানে গেছে ম্যাচের এক দিন আগে। তৃতীয় দফায় একইভাবে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল বিসিবির। তবে সে পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছে তারা। বাংলাদেশ প্রতিটি ম্যাচের আগে ভেন্যুতে অন্তত দুদিন অনুশীলন করবে। এপ্রিলে বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফরের সূচি পরিবর্তন করেছে পিসিবি।

গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পিসিবি জানিয়েছে, বাংলাদেশ দল করাচিতে পৌঁছাবে ২৯ মার্চ। ৩০-৩১ মার্চে হবে অনুশীলন। ১ এপ্রিল করাচি ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে প্রথম ওয়ানডে। আগের সূচি অনুযায়ী যেটি হওয়ার কথা ছিল ৩ এপ্রিল। ওয়ানডের পর তিন দিনের অনুশীলন শেষে করাচি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ, যেটির শুরু ৫ এপ্রিল। টেস্ট শুরুর তারিখটা অবশ্য ঠিকই থাকছে। এগিয়েছে শুধু পাকিস্তানে যাওয়া তারিখ ও অনুশীলন সেশনের সংখ্যা।

পিসিবির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বিষয়ক পরিচালক জাকির খান পরিবর্তিত সূচি নিয়ে বলেছেন, ‘পিসিবি যেকোনো বিষয় সহজ করতে পারলেই খুশি। বাংলাদেশকে আরও বাড়তি কিছুদিন করাচিতে আতিথেয়তা দিতে পারলে আমরা আনন্দিতই হব। করাচির ম্যাচ ঘিরে এরই মধ্যে দারুণ রোমাঞ্চ-আলোচনা তৈরি হয়েছে। পিসিবি আশা করছে সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণে জমজমাট ক্রিকেটই দেখা যাবে।’

এখনো পর্যন্ত পাঁচজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে পাকিস্তানে। এর মধ্যে করাচিতেই আছে দুজন। বিসিবি জানিয়েছে, বিষয়টি তারা পর্যবেক্ষণ করছে। এর মধ্যে আবার করাচিতে থাকার সময় বেড়ে গেল বাংলাদেশ দলের। আগের সূচিতে যেখানে ৯ দিনেই শেষ হতে পারত সফরটা, এখন সেটি হয়ে গেছে ১২দিনের।

বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফরের পরিবর্তিত সূচি:-
২৯ মার্চ-বাংলাদেশ দল পৌঁছাবে পাকিস্তানে
৩০-৩১ মার্চ-অনুশীলন
১ এপ্রিল-প্রথম ওয়ানডে, করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামে
২-৪ এপ্রিল-অনুশীলন
৫-৯ এপ্রিল-করাচি টেস্ট

By Abraham

Translate »