Advertisements

আতঙ্কিত না হ‌য়ে ক‌রোনাভাইরাস সম্প‌র্কে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নি‌র্দেশনা মে‌নে চলার আহ্বান জা‌নি‌য়ে‌ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা।

রোববার (৮ মার্চ) আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপল‌ক্ষে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়ত‌নে আ‌য়ো‌জিত এক অনুষ্ঠা‌নে প্রধান অতিথির বক্ত‌ব্যে তি‌নি এ আহ্বান জানান।

করোনাভাইরাসের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সারা‌ বিশ্বব্যাপী এটা এখন একটা বড় সমস্যা। এ বিষয়ে আমা‌দের স‌চেতন হ‌তে হ‌বে। সাবধান থাক‌তে হ‌বে। ক‌রোনাভাইরা‌সের বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় দিকনির্দেশনা দিচ্ছে। আপনারা সবাই সেই দিকনির্দেশনা মেনে চলবেন। সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবেন। তাহলে যেকোনো সমস্যা আমরা সমাধান করতে পারব।’

প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, সংসদ উপনেতাসহ বিভিন্ন সেক্টরে বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নের সফলতা তুলে ধরে শেখ হাসিনা ব‌লেন, ‘সমাজের অর্ধেক অংশকে অকেজো রেখে, একটি সমাজ সঠিকভাবে চলতে পারে না। সে সমাজ খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলবে। নারী যত শিক্ষিত হবে সমাজ তত এগিয়ে যাবে। আমাদের নারীরা এখন সর্বক্ষেত্রে পারদর্শিতা অর্জন করছে।’

শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে যাওয়ার চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘জেন্ডার গ্যাপ আমাদের এখানে উল্টে গেছে। আমাদের এখানে শিক্ষায় ছাত্রীর সংখ্যা বেশি, ছাত্রের সংখ্যা কম। ছাত্রীরা পাসও ভালো করে, রেজাল্ট করে ভালো। ছেলেরা কেন পিছিয়ে আছে? জেন্ডার গ্যাপ পূরণ করার জন্য আমাদের এখন সেদিকে নজর দিতে হবে।’

অনুষ্ঠা‌নে পাঁচজন মহীয়সী নারী‌কে জয়িতা পুরস্কার তু‌লে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। ম‌হিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়ো‌জিত অনুষ্ঠা‌নে সভাপ‌তিত্ব ক‌রেন প্র‌তিমন্ত্রী ফ‌জিলাতুন‌ন্নেসা ইন্দিরা।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে নারী দিবস। জাতিসংঘ এ বছর নারী দিবসের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে, ‘আমি প্রজন্মের সমতা : নারী অধিকারের প্রতি সচেতনতা’। আর বাংলাদেশে সরকারের পক্ষ থেকে দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে- ‘প্রজন্ম হোক সমতার, সকল নারীর অধিকার’।

By Abraham

Translate »