Advertisements

করোনাভাইরাসে উত্তর কোরিয়ার প্রায় দুইশ’ সেনাসদস্যের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। এছাড়া কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে আরও কয়েক হাজার সেনাসদস্যকে। কিন্তু গোপনে রাষ্ট্রটির নেতারা বলছেন, বৈশ্বিক এই মহামারী তাদের দেশে প্রবেশ করেনি। খবর সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের।

দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম ডেইলি এনকে জানিয়েছে, জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে করোনাভাইরাসে উত্তর কোরিয়ায় ১৮০ জন সেনাসদস্যের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ৩৭০০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। তবে দক্ষিণ কোরিয়ার সরকার সমর্থিত বার্তা সংস্থা ইয়োনহাপ জানিয়েছে, করোনা আতঙ্কে ১০ হাজারের বেশি মানুষকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিল। তবে লক্ষণ না দেখা দেয়ায় প্রায় চার হাজার জনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। যদিও উত্তর কোরিয়ার সরকারি বক্তব্যের ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন আসেনি। দেশটির সরকার জোর দিয়েই বলছে যে সেখানে করোনার সংক্রমণ ঘটেনি। এমনকি স্বচ্ছ তথ্যও সরবরাহ করছে না তারা। উত্তর কোরিয়ার সরকার-নিয়ন্ত্রিত রোডোং সিনমুনের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম নিউজউইক জানিয়েছে, সংক্রামক এই রোগটি উত্তর কোরিয়ায় এখনও প্রবেশ করেনি। উল্লেখ্য, চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে এক লাখ ১৪ হাজার ৭৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৭৬ জনে। তবে আক্রান্তদের ৭০ ভাগই সুস্থ হয়ে উঠছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

By Abraham

Translate »