Advertisements

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক বিক্রির কথা বলে মাইকিং করে প্রচারণার সময় দুই যুবককে আটক হয়েছে। পরে তাদেরকে দুই বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- ঈশ্বরগঞ্জ থানার মধুপুর গ্রামের হাদিস মিয়ার ছেলে রুবেল (২৭) ও কথিত ডাক্তার ফুলবাড়িয়া থানার আশরাফুল হায়দারের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (৩৫)।

বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) সন্ধ্যায় কেন্দুয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম মোবাইল কোর্ট বসিয়ে এ সাজা দেন।

কেন্দুয়া থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান জানান, দুই যুবক উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল গন্ডা ইউনিয়নের বাজারে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়া যাচ্ছে বলে মাইকিং করে ওষুধ বিক্রি করার খবর পান। তাৎক্ষণিক সেখানে ছুটে গিয়ে হাতেনাতে তাদেরকে আটক করা হয়।

পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আটককৃতদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন। মূল হোতা রুবেলকে সশ্রম ও অপর জনকে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হলেও কোনো জরিমানা করা হয়নি।

By Abraham

Translate »