Advertisements

আমেরিকা, ইউরোপসহ বিশ্বের সোয়াশ’রও বেশি দেশের লোক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বেশ কিছু দেশের রাষ্ট্রপ্রধানও। বিশ্বব্যাপী যখন এ রোগ মহামারি আকার ধারণ করেছে, তখন করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সচেতনতার জন্য নিজেই একজন ক্যাম্পেইনার হিসেবে কাজ করছেন। বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শুক্রবার (১৩ মার্চ) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। কাদের বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে যে দল মুজিব বর্ষের মতো অনুষ্ঠান বাদ দেয়, তারা আর কি করবে? আমাদের ও সরকারের আন্তরিকতার কোনও কমতি নেই। তবে কিছু যন্ত্রপাতির ঘাটতি আছে, যেগুলো শিগগিরই পূরণ করা হবে। তিনি বলেন, ইতালিফেরত দুজনসহ মোট তিনজন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন, তারা এখন সুস্থ। বিশ্বের প্রায় শতাধিক দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অনেকটা বিপদমুক্ত। করোনাভাইরাস একটি বৈশ্বিক সংকট। এই পরিস্থিতিতে দেশবেসীকে ভীত না হয়ে সতর্ক থাকতে হবে। সকাল ১১টায় ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত করোনা নিয়ে সচেতনামূলক ক্যাম্পেইনের সূচনা পর্বে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুবলীগের সভাপতি ফজলে শামস পরশসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

By Abraham

Translate »