Advertisements

হঠাৎই চীনে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। আর ঠিক সেই মূহূর্তে এক সপ্তাহের কম সময়ে হাসপাতাল নির্মাণ করে চীন। বেশি কিছু হাসপাতাল তৈরি করে তারা। এবার চীনের কাছে অনুপাণিত হয়ে ইউরোপের দেশ রাশিয়াও একই রকম হাসপাতাল বানাচ্ছে-যদিও দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইলের অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, মস্কো কর্তৃপক্ষ ৯২ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয়ে দ্রুতগতিতে এসব হাসপাতাল তৈরির কাজ শুরু করেছেন। ইউরোপে যেভাবে করোনাভাইরাস বিস্তার লাভ করছে তা ঠেকাতেই আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্বের বড় এ দেশ।
ভাইরাস সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা কম হওয়া সত্ত্বেও দেশটির রাজধানী শহর মস্কোর মেয় সের্গেই সোবানিয়ান স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবা সুবিধা বৃদ্ধির এ ঘোষণা দিয়েছেন।

কোভিড-১৯ রোগী বাড়তে পারে এমন শঙ্কায় ক্রেমলিন থেকে ৪০ মাইল দূরে অন্তত ৮০০ ফুট হাসপাতাল তৈরি হচ্ছে।

করোনাভাইরাসের দ্রুত বিস্তারে এসব হাসপাতাল তৈরির ঘোষণা দিয়ে মস্কোর মেয়র বলেন, ‘আমি নিশ্চিত করতে চাই যেন এটা স্থানীয় বাসিন্দাদের ওপর কোনো ঝুঁকি তৈরি করতে না পারে। আমি আপনাদের আমার এই সিদ্ধান্ত উপলব্ধি করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিতি এই মেয়র জানিয়েছেন, গোটা দেশে যে ৩৪ জন করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এরমধ্যে ২৩ জনই মস্কো শহর এবং এর আশপাশের বাসিন্দা। তবে করোনাভাইরাসে কোনো মৃত্যুর ঘটনা এখনো দেশটিতে ঘটেনি।

By Abraham

Translate »