Advertisements

ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের জনপ্রিয় আসর উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। বিশ্বজুড়ে মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের কারণে অন্যান্য অনেক ক্রীড়া ইভেন্টের মতো থমকে আছে এই টুর্নামেন্টও। কবে আবার খেলা শুরু হবে সেটির নিশ্চয়তা নেই। তবে নতুন করে খেলা শুরু হওয়ার পর সময়ের ঘাটতি পুষিয়ে নিতে ফরম্যাটে পরিবর্তন আনার কথা ভাবছে উয়েফা কর্তৃপক্ষ।

করোনাভাইরাসের ধাক্কা কাটিয়ে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতাগুলো শুরু হলে বেশ ধকল যাবে খেলোয়াড়দের ওপর। কারণ অল্প দিনের ব্যবধানে তথা স্বল্প সময়ের ফারাকে খেলতে হবে একের পর এক ম্যাচ। তখন ভ্রমণ ক্লান্তি কাটানোর সুযোগও হবে না। মূলত সেটা যেনো না হয় তাই ফরম্যাট পরিবর্তন হতে পারে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চলতি মৌসুমের শেষ ষোলো পর্ব প্রায় শেষ। শুধু মাত্র ম্যানচেস্টার সিটি-রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্টাস-লিঁও, বায়ার্ন মিউনিখ-চেলসি ও বার্সেলোনা-নাপোলির দ্বিতীয় লেগের খেলাই বাকি ছিল। আবার খেলা চালু হলে দ্রুত সেই ম্যাচগুলো শেষ করার চিন্তা উয়েফার।

এরপর কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে পাল্টানো হতে পারে ফরম্যাট। বর্তমান নিয়মে চলমান দুই লেগের বদলে একটি করে লেগ আয়োজন করার প্রস্তাব নিয়ে মঙ্গলবার ৫৫টি সদস্য দেশের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের সভা করবেন উয়েফা পরিচালক জর্জিও মার্চেইত্তি। প্রস্তাবের পক্ষে-বিপক্ষে ভোট শেষে আসতে পারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। এক লেগে খেলা হলে নিজ মাঠে সমর্থকদের সমর্থনের ব্যাপার আছে। সেক্ষেত্রে ড্রয়ের মাধ্যমে বেছে নেয়া হবে নিরপেক্ষ কোন ভেন্যু।

কোয়ার্টার ফাইনালের মত সেমিফাইনালও হবে এক লেগের। তবে দুই সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচ হবে তুরস্কের আতার্তুক স্টেডিয়ামে। প্রস্তাবনা অনুসারে সেমিফাইনাল শেষ হওয়ার চারদিন পরেই হবে ফাইনাল। এতে ফাইনালে যাওয়া দুই দলকে বাড়তি ভ্রমণ করতে হবে না। একইসঙ্গে বাঁচবে সময়ও।

উয়েফা আয়োজিত আরেকটি বড় টুর্নামেন্ট ইউরোপা লিগের ব্যাপারেও একই সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে দুই সেমিফাইনালসহ ফাইনাল হবে পোল্যান্ডের দেন্সক স্টেডিয়ামে।

By Abraham

Translate »