Advertisements

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অকালেই চলে গেলেন স্পেনের ফুটবল কোচ ফ্রান্সিসকো গ্রাসিয়া। সোমবার ২১ বছর বয়সী এই কোচ মারা যান। যিনি করোনাভাইরাসে প্রাণ হারানো সবচেয়ে কম বয়সীদের একজন।

তিনি স্পেনের মালাগা ভিত্তিক ক্লাব অ্যাটলেটিকো পোর্তাদা আল্টার যুব দলের কোচ ছিলেন। গেল চার বছর ধরে তিনি ‍যুব দলকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছিলেন।

করোনাভাইরাসের লক্ষণ নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর করোনার পাশাপাশি নিউমোনিয়াও ধরা পরে। সবকিছু মিলিয়ে তার শারীরিক অবস্থার খুবই অবণতি হয়। শেষ পর্যন্ত তাকে আর বাঁচানো যায়নি।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন অ্যাটলেটিকো পার্তাদা আল্টার সভাপতি পেপ বুয়েনো, ‘ফ্রান্সিসকো খুবই ভালো মানুষ ছিলেন। খুবই মেধাবী কোচ ছিলেন। তার মৃত্যুতে আমরা এখনো হতভম্ব। হাসপাতাল থেকে সন্ধ্যা ৭টায় আমাকে ফোন করা হয়। তারা বলেছিল যে ফ্রান্সিসকোর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। এর ঘণ্টাখানেক পর আবার ফোন দিয়ে তার মৃত্যুর সংবাদ জানায়। যতটুকু জানতে পেরেছি করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে। ফ্রান্সিসকো নেই সেটা আমরা বিশ্বাস করতে পারছি না।’

ধারনা করা হচ্ছে করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া সবচেয়ে কম বয়সী ফ্রান্সিসকো। এর আগে ইতালিতে ৩৮ বছর বয়সী একজন মারা গিয়েছিলেন। আর চীনে মারা গিয়েছিলেন ৩৬ বছর বয়সী একজন।

স্পেনেও ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। ইতিমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়েছে। মারা গেছে প্রায় ৩০০ জন। ফ্রান্সিসকো ছিলেন মালাগা অঞ্চল থেকে মারা যাওয়া পঞ্চম ব্যক্তি। তার আগে আরো চারজন মারা গিয়েছিলেন। তাদের সবার বয়স ছিল ৭০ এর উপরে।

তথ্যসূত্র : ইন্ডিপেডেন্ট ও দ্য সান।

By Abraham

Translate »