Advertisements

২২ গজকে বিদায় জানানোর পর নানারকম সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন শহিদ আফ্রিদি। করোনার মোকাবেলায় যখন পাকিস্তান লড়ছে ঠিক এমন সময় ত্রাতা হয়ে দাঁড়িয়েছেন দেশটির সাবেক তারকা ক্রিকেটার।

বিভিন্ন শহরের সুবিধাবঞ্চিতদের জীবাণুনাশক সাবান, ত্রাণ সামগ্রী এবং খাবার দিয়ে সাহায্য করা হচ্ছে শহিদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে। স্বদেশী তারকাদের পাশাপাশি প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের ক্রিকেটারদের পক্ষ থেকেও কুর্নিশ জানানো হয়েছে বুমবুম খ্যাত এই কিংবদন্তি এই অলরাউন্ডারকে।

হরভজন সিংয়ের পর আফ্রিদির পাশে দাঁড়িয়ে টুইট করে মানুষজনের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছিলেন যুবরাজ সিংও। যদিও সাবেক দুই তারকাকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। শুধু তাই নয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক ভারতীয় নাগরিক হরভজন-যুবরাজকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন। এসব কিছুর জবাব দিয়েছেন যুবরাজ। বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে সেরা এই অলরাউন্ডার একটি টুইট পোস্টে জানালেন, মানবিক কারণেই পোস্টটি দিয়েছিলেন তিনি। ‘আমি সত্যিই বুঝতে পারছি না দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর একটি বার্তাকে এত বাজেভাবে তুলে দেয়া হলো। নিজ নিজ দেশের মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতন করতেই এই বার্তাটি দেয়া হয়েছিল। কারও অনুভূতিকে আঘাত করা আমার লক্ষ্য ছিল না।

আমি একজন ভারতীয় এটাই আমি মনে প্রাণে ধারণ করি।  সব সময় মানবতার পক্ষেই থাকব আমি। জয় হিন্দ!’

By Abraham

Translate »