Advertisements

সরকারের অনুমোদনহীন কোন কিট দিয়ে পরীক্ষা করা যাবে না এবং তা গ্রহণযোগ্যও হবে না।
স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ও মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেলের আহবায়ক মোঃ হাবিবুর রহমান খান সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেলের পক্ষ থেকে এই প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।
হাবিবুর রহমান খান বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিত পদ্ধতি অনুযায়ী ও সরকারিভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে অনুমোদিত কিটস এর মাধ্যমেই কেবল পরীক্ষা করা হচ্ছে। র‌্যাপিড কিটস নিয়েও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা রয়েছে এবং সে অনুযায়ী সরকার কাজ করছে।’
ব্রিফিংকালে মিডিয়া সেলের আহবায়ক মিডিয়া সেল গঠনের কারণ ও কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন।
ব্রিফিংকালে মোঃ হাবিবুর রহমান খান করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় শুরু থেকে সরকারের কার্যক্রম ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরেন।
করোনা প্রতিরোধে দেশব্যাপী সকল হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা মনিটরিং এর জন্য বর্তমানে মন্ত্রণালয়ের ৪৪ জন কর্মকর্তা নিয়োজিত রয়েছে এবং জেলা শহরে করোনা পরীক্ষায় ব্যবহারের জন্য ২টি করে আলাদা গাড়ি বরাদ্দ রাখা আছে বলেও হাবিবুর রহমান খান জানান।
করোনা মোকাবেলায় নতুন আরো ২ হাজার চিকিৎসক ও ৬ হাজার নার্স নিয়োগে সরকার কাজ করছে বলেও তিনি জানান।
প্রেস ব্রিফিং এর আগে সকাল ১১ টায় মিডিয়া সেলে একটি জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে প্রতিদিনের মিডিয়া মনিটরিং করে তার রিপোর্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিগোচর করার উদ্যোগ নেয়া হয় এবং করোনায় সকল তথ্য আপডেট রাখতেও কাজ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।
ব্রিফিংকালে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বেগম রীনা পারভীন, যুগ্মসচিব নিলুফার নাজনীন ও মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান উপস্থিত ছিলেন।

By Abraham

Translate »