Advertisements

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গত ৪৮ ঘণ্টায় আরও ৭ জন বাংলাদেশের নাগরিকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ৪ জন যুক্তরাষ্ট্রে, দুজন কুয়েতে এবং একজন মারা গেছেন কানাডায়। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ১৯৮ জন, কানাডায় ৭ জন আর কুয়েতে ৩ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেলেন।

আজ রোববার প্রবাসী বাংলাদেশি ও কূটনৈতিক সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, বিশ্বের ১৪টি দেশে এ পর্যন্ত ৩২৯ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৮ জন, যুক্তরাজ্যে ৭৯ জন, সৌদি আরবে ১৫ জন, ইতালিতে ৮ জন, কানাডায় ৭ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৬ জন, স্পেনে ৫ জন, কাতারে ৪ জন, কুয়েতে ৩ জন, সুইডেন, কেনিয়া, লিবিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও গাম্বিয়ায় ১ জন করে বাংলাদেশি মারা গেছেন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে এখন পর্যন্ত ৩২৯ জন মারা যাওয়ার পাশাপাশি আক্রান্ত হয়েছেন কয়েক হাজার। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি হওয়ায় খুব স্বাভাবিক ওই দুই দেশে আক্রান্তের সংখ্যাও বেশি হওয়ার কথা। তবে ওই দুই দেশে বাংলাদেশ মিশন ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দেশ দুটির স্বাস্থ্য দপ্তরগুলো এখন পর্যন্ত কোন দেশের কত নাগরিক আক্রান্ত সে সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দেয় না। ফলে সঠিক সংখ্যা জানাটা দুরূহ।

তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এখন পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের সংখ্যা প্রায় পাঁচ হাজারের মতো। সিঙ্গাপুরের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে কাতারে। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রবাসী বাংলাদেশির সংখ্যা প্রায় এক হাজার। এ ছাড়া কুয়েতে ১৬০ জন, সৌদি আরবে ১০০ জন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৬০ জন আক্রান্ত বলে খবর পাওয়া গেছে।

By Abraham

Translate »