Advertisements

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মাঝখানে কয়েক দিন যুক্তরাষ্ট্রে একজন বাংলাদেশিও মারা যাননি এমনটি ঘটেছিল। গত রোববার থেকে পরিস্থিতি আবার আগের অবস্থায় ফিরে গেছে। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও অন্তত তিন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশটিতে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত ২৫৩ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন। দেশের বাইরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশির মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে।

আজ দুপুরে নিউইয়র্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের কাছ থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

তবে এদিন যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া বিশ্বের অন্য কোথাও বাংলাদেশের নাগরিকদের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রে সর্বশেষ নিহত তিনজনসহ আজ পর্যন্ত ১৭ দেশে ৫৮৯ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেছেন। এঁদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ২৫৩ জন, যুক্তরাজ্যে ২০০ জন, সৌদি আরবে ৭৬ জন, কুয়েতে ১৭ জন, ইতালিতে ৮ জন, কানাডায় ৭ জন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৬ জন, ফ্রান্স ও স্পেনে ৫ জন করে, কাতারে ৪ জন, সুইডেনে ২ জন, মালদ্বীপ, পর্তুগাল, কেনিয়া, লিবিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও গাম্বিয়ায় ১ জন করে বাংলাদেশি মারা গেছেন।

তবে এখন পর্যন্ত একজনও মারা না গেলেও করোনাভাইরাসে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ সিঙ্গাপুরে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি আক্রান্ত হয়েছেন। আজ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৬৭১ জন। এঁদের মধ্যে বাংলাদেশির সংখ্যা ১২ হাজারের বেশি। সিঙ্গাপুরের পর আক্রান্তের সংখ্যার তালিকায় আছে সৌদি আরব। গত সোমবার পর্যন্ত সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ হাজার।

এ ছাড়া কাতারে ৩ হাজার, কুয়েতে ৮৫০, বাহরাইনে ৪০০, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ২০০, ইতালিতে ২০০ এবং স্পেনে ১৫০ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য বাদ দিয়ে এই ৮ দেশে গতকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশির সংখ্যা ২৩ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

By Abraham

Translate »