Advertisements

মালয়েশিয়ায় আটকে পড়া ১৫৯ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। একই ফ্লাইটে এক বাংলাদেশির মরদেহও ছিল।

এসব বাংলাদেশিকে গতকাল বুধবার দেশে ফিরিয়ে আনে গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্সের সহযোগী প্রতিষ্ঠান জিডি অ্যাসিস্ট। এতে সহায়তা করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন ও সিভিল অ্যাভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশ (সিএএবি)।

করোনা মহামারির কারণে মালয়েশিয়ায় আটকে পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফিরিয়ে আনার এটি প্রথম উদ্যোগ। চার্টার করা একটি ফ্লাইটে তাঁদের আনা হয়। মেডিকেল ট্যুরিজম ও স্বাস্থ্যসেবা পরিচালনাকারী সংস্থা জিডি অ্যাসিস্টের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এর আগে গত মাসেও জিডি অ্যাসিস্টের সহযোগিতায় ব্যাংকক থেকেও ১৬০ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হয়। মালয়েশিয়ায় কয়েক সপ্তাহ ধরে আটকে পড়া ব্যক্তিরা দেশে ফেরত আসার জন্য সেখানকার বাংলাদেশ হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সে অনুযায়ী বাংলাদেশ হাইকমিশনের মাধ্যমে জিডি অ্যাসিস্ট তাঁদের ফিরিয়ে আনার কাজ শুরু করে।

জিডি অ্যাসিস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মঈনউদ্দীন আহমেদ বলেন, কুয়ালালামপুরের দুটি হাসপাতালে এসব বাংলাদেশির কোভিড-১৯ পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। এ ক্ষেত্রে সমর্থন ও সহায়তা করার জন্য তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন ও সিএএবিকে ধন্যবাদ জানান।

By Abraham

Translate »