Advertisements

করোনা ঠেকাতে ভারতজুড়ে চলমান তৃতীয় দফার লকডাউন আজ রোববার মধ্যরাতে শেষ হবে। এরপর শুরু হবে চতুর্থ দফার লকডাউন।

চতুর্থ দফার লকডাউন কত দিন চলবে, সে ব্যাপারে আজ কেন্দ্রীয় সরকার বিস্তারিত নির্দেশনা দেবে বলে জানা গেছে। তবে এই দফায় লকডাউন কিছুটা শিথিল হবে, এমন ইঙ্গিতই পাওয়া যাচ্ছে।

কলকাতার সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, চতুর্থ দফার লকডাউনে দেশের ১২টি রাজ্যের ৩০টি সংক্রমিত পৌর এলাকার ওপর জোর দেওয়া হবে। অন্যান্য এলাকায় লকডাউন শিথিল করার বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা চতুর্থ দফার লকডাউন ৩১ মে পর্যন্ত বাড়ানোর দাবি জানিয়েছিলেন।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, দেশের ১২টি রাজ্যের ৩০টি পৌর এলাকাই এখন করোনা আক্রমণের মূল ঘাঁটি। দেশের করোনা সংক্রমণের ৮০ শতাংশই এই ৩০টি পৌরসভায়। আবার এই ৩০টি পৌর এলাকার ৩০ শতাংশ রয়েছে মহারাষ্ট্র ও তামিলনাড়ু রাজ্যে। গুজরাট ও রাজস্থানে রয়েছে ২টি করে পৌর এলাকা। আর পশ্চিমবঙ্গে রয়েছে কলকাতাসহ ২টি পৌর এলাকা।

তাই বলা যায়, দেশের অন্যত্র লকডাউন শিথিল হলেও কেন্দ্রীয় সরকার চিহ্নিত ৩০টি পৌর এলাকায় লকডাউন আরও জোরদার করা হবে।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার আগামীকাল সোমবার থেকে রাজ্যের পরিবহন ব্যবস্থাকে সচল রাখতে উদ্যোগী হয়েছে। কাল থেকে রাজ্যে সরকারি বাস চলাচল শুরু করবে নিয়মিত। শুরু হবে সীমিত আকারে ট্রাম চলাচলও।
কলকাতার অতিসংক্রমিত এলাকার বাইরে চলাচল করবে বাস-ট্রাম।

রাজ্যের অন্যত্র চালানো হবে বাস। চালু হবে বেসরকারি বাস, ট্যাক্সি পরিষেবা।

গত সোমবার থেকে কলকাতায় শুরু হয় সীমিত আকারে সরকারি বাস পরিষেবা। বলা হয়, কলকাতায় কনটেনমেন্ট জোন ছাড়া অন্যত্র এই বাস চলবে।

সরকারি বাস চলার অনুমোদন দেওয়ার পর বেসরকারি বাস, ট্যাক্সি, স্কুটার, আ্যাপ-ক্যাব চলার অনুমতি দেওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়।

গত বৃহস্পতিবার বেসরকারি বাসমালিক সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক হয় রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর।

বৈঠকের পর মন্ত্রী জানান, কলকাতার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি বাস ছাড়া ট্যাক্সি, স্কুটার, অ্যাপ-ক্যাপ , জল পরিবহন, বিশেষ করে ফেরি সার্ভিস সচল করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সোমবার থেকে রাজ্যে শুরু হবে বেসরকারি বাস, ট্যাক্সি পরিষেবা।

তবে মেট্রো ও লোকাল ট্রেন চলবে কি না, সে বিষয়ে রেল কর্তৃপক্ষ কিছুই জানায়নি এখনো।

শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, কলকাতায় ইতিমধ্যে ১৫টি রুটে সরকারি বাস চালু হয়েছে। কলকাতা শহর ও সংলগ্ন এলাকার আরও ৫০টি রুটে চালানোর প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া দূরপাল্লার বাস চালানোরও উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

By Abraham

Translate »