Advertisements

কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে যে সব ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারী কাজ করছেন তারা ২৮মে’র পর আর ‘বিশেষ প্রণোদনা ভাতা’ পাবেন না।

রোববার এ বিষয়ে এক সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো সার্কুলারে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারীর বিস্তার ঠেকাতে সাধারণ ছুটির মধ্যে যে সব ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারী স্বশরীরে ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে কাজ করছেন তারা ‘বিশেষ প্রণোদনা ভাতা’ পাবেন বলে গত ১২ এপ্রিল এক সার্কুলারে জানানো হয়েছিল।

তবে এখন ব্যাংকিং কর্মকান্ড গতিশীল করার মাধ্যমে অর্থনীতি পুনরুজ্জীবিতকরণের লক্ষে অন্যান্য খাতের মত ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু রাখার আবশ্যকতা পরিলক্ষিত হচ্ছে। সীমিত ব্যাংকিং কার্যক্রম ধীরে ধীরে প্রত্যাহারপূর্বক স্বাভাবিক ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করার বিষয়ে বিষয়ে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেছে।

এ অবস্থায় ব্যাংকগুলোর কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে স্বাভাবিক ধারায় ফিরিয়ে আনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন আবশ্যক হয়ে পড়েছে।

এ প্রেক্ষাপটে, ২৮ মে’র পর হতে ব্যাংকারদের জন্য বিশেষ প্রণোদনা ভাতা প্রদান অব্যাহত রাখার আবশ্যকতা পরিলক্ষিত হয় না।

“এমতাবস্থায়, বিশেষ প্রণোদনা ভাতার পাপ্যতা সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শুরুর তারিখ হতে দুই মাস পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। অর্থাৎ ২৯ মে  থেকে এই প্রণোদনা ভাতা আর পাওয়া যাবে না।”

By Abraham

Translate »