Advertisements

বঙ্গোপসাগরের ইতিহাসে ‘দ্বিতীয় সুপার সাইক্লোন’ আম্পান আছড়ে পড়বে বুধবার।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাত সামাল দিতে এরই মধ্যে উপকূলীয় জেলাগুলোয় প্রস্তুতি নেওয়া শুরু হয়েছে। লোকজনকে নেওয়া হচ্ছে আশ্রয়কেন্দ্রে।

তবে করোনাভাইরাসের সামাজিক দূরত্বের কথা মাথায় রেখে এবার আশ্রয়কেন্দ্রগুলোর ব্যবস্থাপনায় আনা হয়েছে কিছুটা ভিন্নতা।

শক্তিশালী এই ঝড়ে সতর্ক করতে মঙ্গলবারই মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে সাত নম্বর বিপদ সংকেত এবং চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ছয় নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম ও তাদের কাছাকাছি দ্বীপ ও চরগুলো ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় রাখা হয়েছে।

এরই মধ্যে জেলাগুলো থেকে প্রস্তুতি খবরাখবর পাঠিয়েছেন আমাদের প্রতিনিধিরা।

By Abraham

Translate »