Advertisements

রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দলটির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

শনিবার রাতে ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী কফিল উদ্দিন বলেন, ‘হামলায় আমার ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে এ সংঘর্ষ হয়েছে। পরে সব মিটমাট হয়েছে।’

বিএনপির অপর মনোনয়নপ্রত্যাশী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনের কয়েকজন সমর্থকও ওই সংঘর্ষে আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে জানতে তার মুঠোফোনে একাধিক বার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান  বলেছেন, ‘এখনো থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এর আগে বিকেল ৫টায় বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারের জন‌্য ডাকে দলটি। ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপ্রত্যাশী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন ও কফিল উদ্দিন নিজেদের সমর্থক নিয়ে ওই কার্যালয়ের সামনে আসেন। এ সময় উভয় প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি, হাতাহাতি এবং থেমে থেমে সংঘর্ষ হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

By Abraham

Translate »