Advertisements

ভালো ঘুম সুন্দর ও স্বাস্থ্যকর ত্বকের জন্য অনেক জরুরী। তবে এই ঘুমেই হতে পারে উল্টো পতিক্রিয়া। ঘুমের অবস্থান ঠিক না হলে স্কিনে ব্রণ, রিংকেলের মত সমস্যা দেখা দিতে পারে। এই ঘুমের অবস্থানের কারণে আমাদের চেহারায় ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে বলে বলছেন ডার্মাটোলজিস্টরা।

বালিশ নিয়ে যেভাবে ঘুমালে চেহারায় প্রভাব পড়ে:

ঘুমানোর সর্বোত্তম পদ্ধতি হলো বালিশ মাথার নিচে নিয়ে ঘুমানো। ২০ থেকে ৩০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘুমালে শরীরে নিষ্কাশন প্রক্রিয়া ভালো হয়। তবে অনেকেই দেখা যায় পেটের একপাশে চাপ দিয়ে ঘুমায়। এতে করে মুখ বালিশের সাথে লেগে থাকে। বালিশে ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে আবার আমরা যে নাইটক্রিম মেখে রাতে ঘুমাতে যায় তা বালিশে লেগে যেতে পারে। এ থেকে পরবর্তীতে স্কিনে র‌্যাশ হয়। এজন্য কিছুদিন পরপর বালিশের কভার পরিষ্কার করতে হবে।

উপুড় হয়ে ঘুমালে ত্বকের উপর যে প্রভাব পড়ে:

বেশিরভাগ মানুষ পেটের উপর চাপ দিয়ে ঘুমাতে খুব পচ্ছন্দ করে। আমরা যখন ঘুমায় আমাদের স্কিনের বিশ্রামের প্রয়োজন হয়। কিন্তু পেটে চাপ দিয়ে ঘুমালে মুখ থাকে বালিশের উপর, যা স্কিনের ফলিকেল কোষগুলোকে বাঁধা দেয়। এতে করে সারা রাত মুখের উপর চাপ পড়ে। স্কিনের পোরগুলো বন্ধ হয়ে যায় এবং পিম্পল হয়। অনেকসময় স্কিনে রিংকেলও দেখা যায়। এসব সমস্যা থেকে বাঁচতে হলে অবস্থান ঠিক রেখে ঘুমাতে হবে।

একপাশ হয়ে ঘুমালে ত্বকের যে ক্ষতি হয়:

একপাশ হয়ে ঘুমালে পেটের উপর চাপ না পড়লেও এইভাবে ঘুমানোও সঠিক না। একপাশ হয়ে ঘুমালে দেখা দেয় গালের হাড়ের উপর চাপ পড়ে এতে দ্রুত রিংকেল পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

বিছানায় পিঠ রেখে ঘুমানো:

বিছানায় পিঠ রেখে সোজা হয়ে ঘুমানো আদর্শ ঘুমানোর পদ্ধতি। এতে করে একদিকে যেমন পেটে চাপ পড়ে না, অন্যদিকে স্কিনের উপরও প্রভাব পড়ে না। সারা রাত শরীরের বিপাক ক্রিয়াও ভালোভাবে সম্পন্ন হয়।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া

Translate »