Advertisements

করোনাভাইরাস পুরুষের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা কমাতে পারে বলে নতুন এক গবেষণায় সতর্ক করা হয়েছে। তুরস্কের মেরসিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মতে, কোভিড-১৯ রোগ পুরুষের টেস্টোস্টেরন লেভেল হ্রাস করে। টেস্টোস্টেরনকে অ্যান্ড্রোজেন বা পুরুষ হরমোন বলা হয়। এই হরমোন কমে গেলে যৌন আকাঙ্ক্ষা কমে যাওয়া, লিঙ্গোত্থানে সমস্যার মতো ঘটনা ঘটে।

গবেষণার নেতৃত্বদানকারী অধ্যাপক সেলাহিটিন কাভান বলেন, ‘টেস্টোস্টেরন শ্বাসতন্ত্রের অঙ্গগুলোর প্রতিরোধ ব্যবস্থার সঙ্গেও জড়িত। টেস্টোস্টেরনের স্বল্পমাত্রা শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। এছাড়া সংক্রমণের কারণে হাসপাতালে ভর্তি এবং আইসিইউতে ভর্তি পুরুষ রোগীদের মৃত্যুর কারণের সঙ্গেও টেস্টোস্টেরনের স্বল্পমাত্রা সম্পর্কিত। তাই এই হরমোনের চিকিৎসা কোভিড-১৯ রোগ থেকে সুস্থতার বাইরেও সুবিধা দিতে পারে।’

 

এই গবেষণায় গবেষকরা ২৩২ জন পুরুষ করোনা রোগীকে পর্যবেক্ষণ করেছিলেন। রোগীদের ৩টি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছিল- করোনার উপসর্গহীন রোগী, উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালের মেডিসিন ডিপার্টমেন্টে চিকিৎসাধীনে রোগী এবং আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রোগী। রোগীদের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বিশ্লেষণে দেখা যায়, কোভিড-১৯ এর তীব্রতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা হ্রাস পেয়েছে। দুঃখের ব্যাপার হলো, গবেষণার সময় ১১ জন পুরুষ রোগী মারা গিয়েছিলেন।

অধ্যাপক কাভান বলেন, ‘আমরা হাইপোগোনাডিজম দেখতে পেয়েছি- এটি এমন একটা দশা যেখানে শরীর পর্যাপ্ত টেস্টোস্টেরন তৈরি করতে পারে না। ১১৩ জন (৫৩ শতাংশ) রোগীর এ দশা দেখা গেছে। যেসব রোগী মারা গিয়েছিলেন, বেঁচে থাকা রোগীদের তুলনায় তাদের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা উল্লেখযোগ্যভাবে কম ছিল।’

এর মানে, পুরুষ রোগীদের বেশিরভাগই কামশক্তি হারিয়েছিল, যারা করোনার উপসর্গহীন ছিলেন তারাও এই দলে অন্তর্ভুক্ত। অধ্যাপক কাভান বলেন, ‘এমনকি উপসর্গহীন ৪৬ জন পুরুষ রোগীর মধ্যে ৬৫.২ শতাংশের কামশক্তি হ্রাস পেয়েছিল।’

এই গবেষণার ফলাফলের আলোকে গবেষকরা পরামর্শ হলো, টেস্টোস্টেরন চিকিৎসা পুরুষ রোগীদের কোভিড-১৯ থেকে উন্নতির পাশাপাশি যৌনক্ষমতার উন্নতিতেও সহায়তা করতে পারে। করোনা টেস্টের সময় টেস্টোস্টেরন লেভেল টেস্ট করার প্রস্তাব দিয়েছেন গবেষকরা।

By Abraham

Translate »