Advertisements

রোহিত শর্মা ভিত গড়ে দিয়ে যান। সেই ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে পেয়ে মরুর বুকে ঝড় তোলেন কাইরন পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়া। এমন দৃশ্য গত পাঁচ আইপিএলে বেশ কয়েকবারই দেখেছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের সমর্থকেরা। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে আজও ঠিক তাই হলো। শেষের ঝড়ে মুম্বাইয়ের ইনিংস দাঁড়াল ১৯১ রানে। যা তাড়া করতে গিয়ে ১৪৩ রানে থামে পাঞ্জাবের ইনিংস।

রোহিত শর্মা, কাইরন পোলার্ড, হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুনাল পান্ডিয়া, জশপ্রীত বুমরা—গত ৫ বছর ধরে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস এই পাঁচ ক্রিকেটারকে রেখেই দল সাজিয়ে আসছে। পাঁচজনই যেন মুম্বাইয়ের ঘরের ছেলে! ফর্ম যত খারাপই হোক, তাঁদের ওপর সব সময়ই আস্থা মুম্বাই ম্যানেজমেন্টের। আইপিএলের সবচেয়ে সফল এই দলটার সাফল্যের পেছনেই ঘুরে ফিরে আসে এই পাঁচ ক্রিকেটারের নাম।
আজও যেমন ইনিংসের প্রথম ১৫ ওভার পর্যন্ত পাঞ্জাব বোলাররা দাপট দেখালেও ক্রিজে থেকে দলকে শক্তিশালী অবস্থানে নিয়ে গেছেন ওপেনার রোহিত। ৪৫ বলে করেছেন ৭০ রান। এরপর বাকি কাজটা করেছেন পোলার্ড-পান্ডিয়া। শেষ পাঁচ ওভারে মুম্বাই যোগ করেছে ৮৯ রান! পোলার্ড পর পর দুই ম্যাচে ব্যাটিং তাণ্ডব দেখালেন, ২০ বলে করেছেন ৪৭ রান। শেষে যোগ দেন হার্দিক পান্ডিয়া। মাত্র ১১ বলে করেছেন ৩০*। স্ট্রাইকরেট—২৭২.৭২! ১৫ ওভারে মুম্বাইয়ের রান ছিল ৩ উইকেটে ১০২। সেখান থেকে ২০ ওভারে দলের রান ১৯১!

কৃষ্ণাপ্পা গৌতম, জিমি নিশাম ও মোহাম্মদ শামি—পাঞ্জাবের ডেথ ওভারের তিন বোলারকে বেধড়ক পিটিয়েছে পোলার্ড-পান্ডিয়া জুটি। গৌতমের স্পিন কাজে আসেনি। নিশামের মিডিয়াম পেস পেয়ে যেন আরও খুশিই হলেন এই দুই হার্ড হিটার। শামির গতিও বেশ উপভোগ করেছেন তাঁরা।
পাঞ্জাবের দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও মায়াঙ্ক আগারওয়ালও এবারের আইপিএল বেশ উপভোগ করছিলেন। প্রতি ম্যাচেই কেউ না কেউ বড় রান করছিলেন। আজও জিততে দরকার ছিল বড় কিছুর। কিন্তু মুম্বাইয়ের বোলারদের সামনে দুজনই আউট অল্প রানে।

দুই ওপেনার দারুণ ফর্মে থাকায় এখন পর্যন্ত খুব বেশি ব্যাটিং করতে হয়নি পাঞ্জাব মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের। আজ ওপেনাররা ব্যর্থ হওয়ায় পরীক্ষার মুখে পড়তে হয় গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও নিকলাস পুরানদের। পুরান মাঝের ওভারে ২৭ বলে ৪৪ রান যোগ করে আউট হন। এই ক্যারিবিয়ান বাঁহাতি ইনিংস লম্বা করতে পারলে ম্যাচের মোড় ঘুরে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু বুমরা, প্যাটিনসন, রাহুল চাহাররা সেটা হতে দেননি। ২০ ওভার শেষ পর্যন্ত পাঞ্জাব করে ৮ উইকেটে ১৪৩ রান। মুম্বাই জিতে ৪৮ রানের বড় ব্যবধানে।

By Abraham

Translate »