Advertisements

১৯ সেপ্টেম্বর টুইটারে অনুরাগ কশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন বাঙালি অভিনয়শিল্পী পায়েল ঘোষ। এর দুই দিন পর মুম্বাইয়ের আন্ধেরির ভারসোভা থানায় ধর্ষণ এবং শ্লীলতাহানির সাধারণ অভিযোগ (এফআইআর) দায়ের করেন তিনি। পায়েলের দাবি, ২০১৩ সালে তিনি হয়রানির শিকার হয়েছিলেন। এরপর ভারতীয় সংবিধানের ৩৭৬, ৩৫৪, ৩৪১ ও ৩৪২ ধারা অনুযায়ী অনুরাগের বিরুদ্ধে মামলা লিপিবদ্ধ হয়। শুধু তা–ই নয়, পায়েল অনুরাগের বিরুদ্ধে মাদক সেবনের কথা জানিয়ে আরেকটি অভিযোগ দাখিল করেন।

শুক্রবার পায়েলকে মুম্বাইয়ের ভারসোভা থানায় তলব করা হয়। সেখানে পায়েলের অভিযোগ সম্পর্কে বিস্তারিত শোনেন পুলিশ। এ নিয়ে টুইট করে প্রশ্ন তুলেছেন পায়েলের আইনজীবী নীতিন সতপুতে। তিনি বলেছেন, ‘যিনি অভিযোগ করেছেন, তাঁকেই ডেকে পাঠিয়েছে পুলিশ। আর যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়েছে, তাঁর কোনো নাম নেই।’ আজ বৃহস্পতিবার থানায় হাজির হয়েছেন অনুরাগ কশ্যপ ও তাঁর আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা খিমানি। প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘আমার মক্কেলের বিরুদ্ধে যে জঘন্য অভিযোগ উঠেছে, তাতে তিনি ক্ষুব্ধ, মর্মাহত। কোনো সন্দেহ নেই, অভিযোগগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা আর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’

সোমবার একটি সংবাদ সম্মেলন ডাকেন পায়েল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আটওয়ালে। সেখানে তাঁরা অনুরাগ কশ্যপের গ্রেফতারের দাবি তোলেন। সংবাদ সম্মেলন শেষে দুজনেই মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কোশারির সঙ্গে দেখা করেন। সেখানে পায়েল নিজের জন্য ‘ওয়াই’ ক্লাস (১১ জন নিরাপত্তাবিষয়ক কর্মকর্তা, এক বা দুইজন কমান্ডো অফিসার ও পুলিশের সার্বক্ষণিক প্রহরা) নিরাপত্তার অনুরোধ করেন। অনুরাগ কশ্যপের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ না নেওয়া হলে তিনি অনশনে বসবেন বলেও হুমকি দেন।

বাঙালি অভিনয়শিল্পী পায়েল টুইটে লিখেছেন, ‘অনুরাগ কশ্যপ আমাকে ধর্ষণ করতে চেয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, আপনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন। একজন সৃষ্টিশীল মেধাবী নির্মাতার আড়ালে একটা দানব লুকিয়ে আছে। এই দেশের সামনে সেই দানবের আসল চেহারা উন্মোচিত করুন। আমি জানি, আমার ক্ষতি হতে পারে। আমার নিরাপত্তা নিয়েও আমি শঙ্কিত। আমাকে সাহায্য করুন, প্লিজ।’

সেখানে তিনি ট্যাগ করে দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। পায়েলকে সমর্থন জুগিয়ে পাল্টা টুইট করেছেন কঙ্গনা রনৌত। শুধু তা-ই নয়, সেখানে নিজের সঙ্গে ঘটে যাওয়া যৌন হেনস্তার বর্ণনাও দিয়েছেন কঙ্গনা। এ দুজনকে সমর্থন করে টুইট করেছেন বাঙালি অভিনেত্রী রুপা গাঙ্গুলিও। লিখেছেন, ‘আমার ধারণা, তাঁরা যা বলছেন, তা সত্য।’ এদিকে অনুরাগের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন তাঁর সাবেক স্ত্রী কালকি কেঁকল্যা থেকে শুরু করে অসংখ্য বলিউড ও টালিউড তারকা। গুণী এই পরিচালকের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাপসী পান্নু, স্বরা ভাস্কর, ঋতুপর্ণা , ঋতাভরী চক্রবর্তী, ঈশিকা দেসহ আরও অনেকে।

By Abraham

Translate »