Advertisements

সামাজিক সচেতনতা তৈরি করতে ধর্ষণের কুফল সম্পর্কিত বিষয় শ্রেণিভিত্তিক কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রবিবার আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস-২০২০ উপলক্ষ্যে ‘রুম টু রিড’ আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সভায় মন্ত্রী এই কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘মানুষ গড়তে শিক্ষা হচ্ছে বড় হাতিয়ার। শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের আমরা সত্যিকারের মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। সামাজিক সচেতনতা তৈরিতে নারীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন, নারীর মর্যাদা, ধর্ষণের কুফল এবং এ সম্পর্কিত বিষয়গুলো শিক্ষার্থীদের কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।’

ধর্ষণ প্রতিরোধে একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘বর্তমানে নারী ধর্ষণ একটি সামাজিক ব্যাধি হিসেবে পরিণত হয়েছে। প্রত্যেকে মিলে এই সামাজিক ব্যাধি দূর করতে হবে। এর জন্য সমাজে সতেচনতা তৈরি করতে হবে। নারীর উন্নয়ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। এজন্য সামাজিক কাঠামো পরিবর্তন আনতে হবে।’

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘নারী নির্যাতন, ধর্ষণ ও অত্যাচার প্রতিরোধে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।’ অন্যায় করে কেউ যেন পার না পায় সে জন্য কোনো ঘটনা ঘটলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কাউকে ছাড় দেন না, কঠোরভাবে তা প্রতিরোধ করার নির্দেশ দিচ্ছেন বলে জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা।

ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, জাতীয় মানবাধিক কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক অধ্যাপক ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য, ডিএমপির ডেপুটি কমিশনার আসমা সিদ্দিকা মিলি, রুম টু রিডের বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর রাখী সরকার।

Leave a Reply

Translate »