Advertisements

মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার চরাঞ্চলের খাসকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে কয়েকজন গুলিবিদ্ধসহ ১৪ জন আহত হয়েছে।

আজ শনিবার (৭ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সংঘর্ষ হয়। তখন ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। বসতঘরও ভাঙচুর করা হয়। মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান এ সব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

ওসি আনিচুর রহমান বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে স্থানীয় নাজীর হাওলাদারের সঙ্গে আলী আহম্মেদের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে আজ সকালে নাজীর হাওলাদারের লোকজনের ওপর আলী আহম্মেদের লোকজন আকস্মিক হামলা করে। পরে আলী আহম্মেদের লোকজন পাল্টা হামলা করলে দুইপক্ষ সংঘর্ষ জড়িয়ে পড়ে। এ সময় দুইপক্ষ গুলি-পাল্টা গুলি করে। এতে উভয়পক্ষের কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়।

আহতরা হলেন, শাওন, আলামিন, রুবেল খান, রবিন, নয়ন, রিয়াদ খান, কাদির খান, ফারুক খান, ফেরদৌস খান, মুসা খান, ইমরান, নাহিদ ও জসিম মোল্লা। ককটেল বিস্ফোরণে গুরুতর জখম আলামিনকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানান ওসি।

আনিচুর রহমান জানান, সংঘর্ষের সময় অর্ধশতাধিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। কমপক্ষে ১৫টি বাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

 

মুন্সীগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) খন্দকার আশফাকউজ্জামান বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশের উপস্থিত হলে সংঘর্ষকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি।

By Abraham

Translate »