Advertisements

ফিটনেস পরীক্ষা দেয়ার জন্য মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হাজির হয়েছেন সাকিব আল হাসান। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের জন্য ড্রাফটে নাম তুলতে হলে তাকে ফিটনেস পরীক্ষায় পাস করতে হবে।

সোমবার সকাল ১০টার পর স্টেডিয়ামে হাজির হন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। ঠিক ৩৭৫ দিন পর বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার মিরপুরে আগমন করেন।

তিন দফা ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তথা আইসিসির দুর্নীতি দমন বিভাগকে অবহিত না করায় গত বছরের ২৯ অক্টোবর রাতে নিষিদ্ধ হন সাবিক। এরপরই তিনি মিরপুরের হোম অব ক্রিকেট ছেড়েছিলেন।

গত মার্চে মহামারির শুরুতে সাকিব যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে চলে গিয়েছিলেন। স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে সময় কাটিয়ে দেশে ফেরেন সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দুই পুরোনো গুরু নাজমুল আবেদীন ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সঙ্গে কাজ করেন এক মাস। সাকিব প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ সামনে রেখে। শ্রীলঙ্কা সিরিজ না হওয়ায় সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে আবার চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে। অক্টোবর মাসটা সেখানে কাটিয়ে গত বৃহস্পতিবার দেশে ফেরেন।

কয়েকদিন পরেই মাঠে গড়াবে ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ। প্রথম বারের মতো আয়োজিত হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টে খেলবে মোট পাঁচটি দল। সেজন্য ১১৩ সদস্যের একটি ইউনিট ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্লেয়ার ড্রাফট হবে এই তালিকা থেকেই। তালিকার বড় নাম সাকিব তবে তার আগে খেলোয়াড়দের পাশ করে আসতে হবে ফিটনেস পরীক্ষায়। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ইয়ো ইয়ো ও বিপ টেস্ট দিয়েছেন।

ফিটনেস টেস্টে অংশ নিতে সকালে মিরপুরে হাজির হন সাকিব। সবার আগেই দেশসেরা অলরাউন্ডার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মিরপুরে ইনডোরে সময় কাটান। এরপর সকাল ১০টার কিছু আগে জিমে ঢোকেন তিনি। কিছুক্ষণ জিম করেই আবার বেরিয়ে যান তিনি।

Translate »