Advertisements
বাতিল করে দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির ২০১৯-২১ মেয়াদের কার্যনির্বাহী কমিটি। সমিতির কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা এবং সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে সেখানে প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে। বাণিজ্য সংগঠন অধ্যাদেশ, ১৯৬১ এর ১০ ধারা অনুযায়ী বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব খন্দকার নুরুল হককে সমিতির প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে। ১৬ নভেম্বর (সোমবার) মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম স্বাক্ষরিত এক আদেশে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
আদেশের বলা হয়, বাংলাদেশ প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির ২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচনের অনিয়মের বিরুদ্ধে জায়েদ খানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একজন উপসচিবকে অভিযোগের বিষয়সমূহ তদন্ত করে প্রতিবেদন প্রেরণের দায়িত্ব প্রদান করা হয়। তদন্ত শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।
আদেশে আরও বলা হয়, প্রযোজক-পরিবেশক সমিতির নির্বাচন বিষয়ে হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু ও সাধারণ সম্পাদক পদে সামসুল আলম নির্বাচিত হয়েছেন বিষয়টির সত্যতা রয়েছে। তাই, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির ২০১৯-২০২১ কার্যনির্বাহী পরিষদের কমিটি বাতিল করে উক্ত সমিতিতে প্রশাসক নিয়োগ করা হলো।
নিয়ম অনুযায়ী, প্রশাসক দায়িত্ব গ্রহণের দিন থেকে ১২০ দিনের মধ্যে সমিতির কার্যক্রম পরিচালনাসহ, বিধি অনুযায়ী সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করে নির্বাচিত কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করবেন। এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে অবহিত করবেন। উল্লেখ্য, সাত বছর পর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিবেশক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৯ সালের ২৭ জুলাই। নির্বাচনে ১৪০ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ১৩০ জন। ১২১ ভোট ও ১১৭ ভোট পেয়ে সাধারণ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন যথাক্রমে খোরশেদ আলম খসরু ও সামসুল আলম। পরে তারা দুজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছিলেন।

By Abraham

Translate »