Advertisements

২৭ বছর পর নিজেদের অঞ্চল ‘অগদাম’ ফিরে পেয়ে আনন্দে ভাসছে আজারবাইজান। আর্মেনিয়ার দখল থেকে মুক্ত ‘অগদাম’ অঞ্চলে শুক্রবার (২০ নভেম্বর) আজারবাইজানের সেনাবাহিনী প্রবেশ করেছে।

তারা আনুষ্ঠানিকভাবে ওই অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

 

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গণমাধ্যম বিভাগের প্রধান লায়লা আব্দুল্লাহ আভা এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, ‘২৭ বছরের অনুশোচনার অবসান হয়েছে।

আমাদের অপরূপ ভূখণ্ডটি আবারও মায়ের কোলে ফিরে এসেছে। নিজের ভূখণ্ড আবারও ফিরে পাওয়ায় আজারবাইজানের জনগণও বেশ খুশি।

 

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ২৭ বছর আগে যেসব আজারি ভিটেমাটি ছাড়তে বাধ্য হয়েছিল এখন তারা ফিরে আসতে পারবে। তাদের ফিরে আসার সুযোগ তৈরি হয়েছে।

‘অগদাম’ এলাকাটি রাজধানী বাকু থেকে ৩৭৮ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত। এটি নাগার্নো-কারাবাখের একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা হিসেবে পরিচিত। ১৯৯৩ সালে এ জেলাটিকে দখলে নিয়েছিল আর্মেনিয়া।

 

দীর্ঘ কয়েক সপ্তাহের যুদ্ধের পর গত ১০ নভেম্বর রাশিয়ার তত্ত্বাবধানে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান নাগার্নো-কারাবাখে যুদ্ধ বন্ধে সম্মত হয়েছে। চুক্তির বাস্তবায়ন তদারকি করতে এরইমধ্যে নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলে রুশ সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এ দু’দেশের স্বাক্ষরিত চুক্তিতে বলা হয়েছে, আর্মেনিয়া দখলীকৃত ‘অগদাম’, লাচিন ও কালবাজার এলাকা আজারবাইজানের কাছে হস্তান্তর করবে।

চুক্তি অনুযায়ী কারাবাখ অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য আজারবাইজানের লাচিনকে করিডোর হিসেবে ব্যবহারের অনুমতি পাবে আর্মেনিয়া। তবে এর বিনিময়ে আর্মেনিয়াও আজারবাইজান ও নাখচিভান প্রজাতন্ত্রের মধ্যে পণ্য আনা-নেওয়ার জন্য করিডোর সুবিধা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সূত্র: পার্সটুডে।

By Abraham

Translate »