Advertisements

২০২৪ সালের আগস্ট মাসে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে এবং চালু করা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।

তিনি বলেন, ১৬ হাজার ৭৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে জাপানের অর্থায়নে দেশটির একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্মাণকাজ করছে।

এ সেতুর মাধ্যমে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠবে। ভারত, নেপাল, ভুটান ও চীনের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপিত হবে।
রোববার (২৯ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে একথা বলেন তিনি।

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, যে কোনো গণতান্ত্রিক সরকারের কাজ হচ্ছে জনগণকে সম্পৃক্ত করে উন্নয়ন কাজ করা। ব্রিটিশ আমলে উত্তরাঞ্চলের রেল যোগাযোগ ছিল কলকাতামুখী। স্বাধীন বাংলাদেশে সেটি ঢাকামুখী করা হয়।

রেলের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বিষয়ে রেলপথমন্ত্রী বলেন, সিরাজগঞ্জ থেকে বগুড়া পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণের কাজ দ্রুত শুরু হবে। বর্তমানে যে সব প্রকল্প নেওয়া হয়েছে, সেগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে রেল ব্যবস্থাপনায় আমূল পরিবর্তন আসবে।

তিনি বলেন, জয়দেবপুর থেকে ঈশ্বরদী পর্যন্ত ডাবল লাইন, জয়দেবপুর থেকে জামালপুর পর্যন্ত ডাবল লাইন নির্মাণের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে।

মতবিনিময় সভায় রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান বক্তব্য রাখেন। সিরাজগঞ্জ থেকে পরে মন্ত্রী টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক‌ই বিষয়ে মতবিনিময় করেন।

Leave a Reply

Translate »