প্রবাসী শ্রমিকদের বিষয়ে প্রতিবেদন মন্ত্রিসভায় জমা দিন : প্রধানমন্ত্রী

Advertisements

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসী শ্রমিকদের তাদের কর্মস্থলে ফরত পাঠানো এবং তাদের জন্য নতুন কাজের বাজার সন্ধানের ব্যবস্থা সম্পর্কিত একটি পরিপুর্ন প্রতিবেদন পরবর্তী মন্ত্রিসভার বৈঠকে জমা দেওয়ার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকের সভাপতিত্বকালে এই নির্দেশনা প্রদান করেন। তিনি গণভবন থেকে এবং মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা বাংলাদেশ সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যুক্ত হন।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, বিদেশে কর্মসংস্থান ও যারা বিদেশে গেছেন তাদের কিভাবে আরও ভালোভাবে কাজের সুযোগ করে দেওয়া যায় বা কিভাবে আরো দেশে কাজের ক্ষেত্র তৈরি করা যায় সে বিষয়ে আগামী মন্ত্রিসভা বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী উজবেকিস্তান ও কাজাকিস্তানের মতো দেশগুলোতে নতুন শ্রম বাজার সন্ধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। কারণ, বিদেশের কর্মসংস্থানের জন্য এই দেশগুলো পরবর্তী লাভজনক স্থান হতে পারে, বলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

আনোয়ারুল ইসলাম আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী বিদেশে নতুন চাকরির বাজার অনুসন্ধানের বিষয়ে এবং পুরোপুরি আটকে থাকা প্রবাসী শ্রমিকরা যেসব দেশে কর্মরত ছিলেন তাদের ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে সম্পূর্ণ প্রতিবেদন জমা দিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, কোভিড-১৯ মহামারীকালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় কতৃর্ক গৃহীত পদক্ষেপ এবং ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে মন্ত্রিসভাকে অবহিতকরণ করা হয়।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, অর্থমন্ত্রী সৌদি আরবের অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। যাতে করে সে দেশে বাংলাদেশ বিমানের আরো বেশি ফ্লাইট চালু করা যায়।

তিনি আরও যোগ করেন, অর্থমন্ত্রী মধ্য প্রাচ্যের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সময়সীমা আরও বাড়ানোর জন্য অনুরোধ করেছিলেন কারণ ২৪ দিনের সময়সীমার মধ্যে সৌদি প্রত্যাবাসীদের তাদের কর্মস্থলে প্রেরণ করা কঠিন হবে। তাই, ২৪ দিনের সময় আরও বাড়ানোর কথাও বলা হয়েছে।