সবধরনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় গুরুত্বের নির্দেশ: প্রধানমন্ত্রী

Advertisements

সবধরনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা জোরদারে বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এই নির্দেশ দেন। সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এই তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তিনি বলেছেন, বাস, নৌ, বিমান বা যেকোনো স্টেশনের বর্জ্য অপসারণ করতে হবে। এ কাজে যেসব সংস্থা দায়িত্বপ্রাপ্ত তাদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

এছাড়া ডিজিটাল ভূমি জোনিংয়ের সময় বাংলায় সব তথ্য নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, যাতে সাধারণ মানুষ সহজেই বুঝতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর অন্যান্য নির্দেশনা তুলে ধরে এম এ মান্নান বলেন, নদীর ও খালে পাড় দখলমুক্ত করা নির্দেশনাও এসেছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, অনেকে খালে পাড় দখল করে ভবন তুলেছে, এগুলো অপসারণ করতে হবে। দেখা যায় এতে খাল স্বাভাবিক গতি ব্যাহত হয়, খালে কচুরিপনা জমে যায়। কচুরিপনামুক্ত করতে হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নৌ-পথের বর্জ্য অপসারণে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় যৌথভাবে কাজ করবে। এছাড়া কৃষিজমি রক্ষায় যেখানে সেখানে শিল্প স্থাপন করা যাবে না। অর্থনৈতিক অঞ্চলে শিল্প স্থাপন করতে হবে, যেখানে গ্যাস, পানি, বিদ্যুৎ রাস্তাসহ সবধরনের সুবিধা রয়েছে। পাশাপাশি নদীর পার দখলমুক্ত করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। একদিকে পাড় অবৈধ দখলমুক্ত করা, অন্যদিকে কচুরিপনামুক্ত করে ড্রেজিং করতে হবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনা কমিশনের কৃষি, পানিসম্পদ ও পল্লী বিভাগের সদস্য (সচিক) জাকির হোসেন আকন্দ বলেন, খালে মাটি কেটে বাঁধ দেয়া একেবারেই অনুচিত। এমন হওয়ার কথা নয়।