সিলেট, নারায়ণগঞ্জে থানা ও ফাঁড়িতে এলএমজি চৌকি

Advertisements

নারায়ণগঞ্জ জেলার ৭ থানা ও ৮টি ফাঁড়িতে বিশেষ নিরাপত্তায় এলএমজি চৌকি স্থাপন করা হয়েছে।
বুধবার (৭ এপ্রিল) রাত থেকে থানায় নিরাপত্তার অংশ হিসেবে গুরুত্ব অনুসারে থানা, ফাঁড়ি ও তদন্তকেন্দ্রে এলএমজি পোস্ট ও সিমেন্টের বস্তা দিয়ে বিশেষ ধরনের প্রতিরোধ ব্যবস্থা স্থাপন করা হয়েছে।পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে পুলিশ সদস্যের সংখ্যা। এসব চৌকিতে ২৪ ঘণ্টা দায়িত্ব পালন করছে পুলিশ।

 

 

এদিকে সিলেট জেলা ও মহানগর এলাকার সবক’টি থানা এলাকায় এলএমজি পোস্ট স্থাপন করা হয়েছে।   এরইমধ্যে মহানগর পুলিশের ছয়টি থানায় বাড়তি সতর্কতা স্বরূপ লাইট মেশিনগান (এলএমজি) পোস্ট স্থাপন করা হয়েছে।জেলার সবক’টি থানায়ও বাড়তি সতর্কতা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।  অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা বা হামলার আশঙ্কায় প্রতিটি থানায় ৩০/৫০ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।  পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনায় বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) থেকে এমন নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।  সরেজমিন এসএমপি কোতোয়ালি মডেল থানায় গোলঘরে সিমেন্টের বস্তা দিয়ে বাংকার তৈরি করে এলএমজি পোস্ট স্থাপন করতে দেখা গেছে। ওই স্থানে এলএমজি হাতে এক পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।