চাপহীন মুমিনুল; জিততে চান প্রথম টেস্টে

Advertisements

মুমিনুল হক দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে টেস্ট ক্রিকেটে বলার মতো কোনো পারফরমেন্স করতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। কিছুদিন আগেও ঘরের মাটিতে উইন্ডিজের দ্বিতীয় সারির দলের কাছে হেরেছে বাজেভাবে। তারপরও আশা ছাড়ছেন না টাইগার ক্যাপ্টেন মুমিনুল হক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা দিতে পারলেই ভালো ফল পাওয়া সম্ভব বলে মনে করেন টেস্ট দলের ক্যাপ্টেন।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের আগেরদিন মুমিনুল বললেন, কোনো প্রকার চাপ নিচ্ছেন না তারা। তিনি বলেন, চাপ যদি বলেন, আমি তো কোনো চাপে নেই। আমার দলও কোনো চাপে নেই। আমরা এখানে এসেছি ম্যাচ জেতার জন্য। পুরোপুরি চেষ্টা করব ম্যাচ জেতার, এটাই শেষ কথা।

অতীত সমীকরণ ও বর্তমান পারফরমেন্সের কথা বিচার করলে বাংলাদেশ তাদের চেয়ে বেশ পিছিয়ে রয়েছে তারপরও নিজেদের ছোট করে দেখছেন না টাইগারার ক্যাপ্টেন। বলেছেন, অবশ্যই শ্রীলঙ্কা আমাদের চাইতে ভালো অবস্থায় রয়েছে। তার মানে এই না যে আমরা খারাপ দল। হ্যাঁ, শেষ দুই টেস্ট ভালো খেলতে পারিনি। তাই বলে অতীত নিয়ে চিন্তা করে নিজেদের আত্মবিশ্বাস নষ্ট করতে পারবো না। ৫ দিন ভালো খেলতে পারলেই জয় হবে নিশ্চিত আমাদের।

উইন্ডিজের বিপক্ষে দল একদমই ভালো করতে পারেনি। তখনই প্রশ্ন উঠেছিলো দলের অধিনায়ক ও কোচ নিয়ে। গুঞ্জন উঠেছে এই সিরিজে দলের পারফরমেন্সের উপরই নির্ভর করছে টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল থাকছেন কি না? সেই সাথে কোচের ভাগ্যও নির্ধারণ হবে এই সিরিজেই।

তবে এসব কিছুই আমলে নিচ্ছেন না মুমিনুল হক। বলছেন, আমি শ্রীলঙ্কায় এসেছি, মাঠে নামবো, বোলার বল করবে, আমি ব্যাটিং করবো, আর আমার বোলাররা বল করবে, ওদের ব্যাটসম্যানরা ব্যাটিং করবে, আমাদের ফিল্ডাররা ফিল্ডিং করবে। আমরা আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলবো। আমি আসলে এসব নিয়েই কনসার্ন।

নিউজিল্যান্ডে যদিও ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশ তারপরও সেখানে বাংলাদেশ দলের ফিল্ডিং নিয়ে হতাশায় ভুগছে ক্রিকেট ভক্তরা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টেও কি এমন ফিল্ডিং দেখবে জাতি? এমন প্রশ্নের উত্তরে মুমিনুল বলেন, এখানকার কন্ডিশন আর নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন একেবারেই ভিন্ন। শ্রীলঙ্কার কন্ডিশন অনেকটা আমাদের মতোই। একটা সিরিজে ভুল ফিল্ডিং হতেই পারে। আমার মনে হয় না প্রত্যেকটা সিরিজে এরকমই হবে।

বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১০ টায় ক্যান্ডিতে মুখোমুখি হবে দুই দল। দুই দলের মুখোমুখি শেষ তিন দেখায় দুটিতে জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। আর একটিতে জয় পেয়েছিলো বাংলাদেশ।