মাদক সম্রাটের সুদর্শনী স্ত্রী দোষী সাব্যস্ত

Advertisements

মেক্সিকোর মাদক সম্রাট জোয়াকুইন ‘এল চাপো’ গুজম্যানকে মাদক কারবারে সহায়তা করার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন তার স্ত্রী এমা করোনেল আইপুরো।

যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালতে বৃহস্পতিবার তিনি তার দোষ স্বীকার করে নেন। খবর সিএনএনের।

খবরে বলা হয়, ৩১ বছর  বয়সি এমা আদালতে হাজির হয়ে দোষ স্বীকার করে নেন।

তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার জরিমানা এবং যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হতে পারে।

৩১ বছর বয়সি এমা করোনেল আইপুরোকে ফেব্রুয়ারিতে ওয়াশিংটন ডিসির বাইরে ডালাস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করে যুক্তরাষ্ট্র। এই নারীর বিরুদ্ধে কোকেন, মেথামফেটামিন, হেরোইন, গাঁজা পাচারের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মেক্সিকোর অন্যতম কুখ্যাত মাদকপাচারকারী গোষ্ঠী সিনালোয়া কার্টেলের নেতা ছিলেন গুজম্যান।  তারই স্ত্রী এই এমা করোনেল আইপুরো।  তিনি যুক্তরাষ্ট্রে শত শত টন মাদকপাচার করেন। তাকে ২০১৭ সালে মেক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে আসা হয়। পরে যুক্তরাষ্ট্রে আনার দুই বছরের মাথায় বিচারে গুজম্যানকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা দেয়া হয়। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করছেন ৬৩ বছর বয়সি গুজম্যান।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের তথ্যমতে, গুজম্যানের স্ত্রী এমাও কার্টেলের কর্মকাণ্ডে অংশ নেন। মেক্সিকোর কারাগার থেকে গুজম্যানের পালানোর দুই দফা ষড়যন্ত্রে সহায়তা করেন তিনি। তার মধ্যে প্রথম দফার ষড়যন্ত্রে ২০১৫ সালে গুজম্যান কারাগার থেকে পালাতে সক্ষম হন।

এমা মেক্সিকোর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রেরও নাগরিক।