টিভি বিতর্কে দুই পাকিস্তানি নেতার হাতাহাতি, থাপ্পড় (ভিডিও)

Advertisements

পাকিস্তানে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাবেক সহকারী ফিরদৌস আশিক আওয়ান ও পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) জাতীয় পরিষদের সদস্য (এমএনএ) কাদির মান্দোখাইল। বিতর্কের একটি অনুষ্ঠানে টেলিভিশনের স্টুডিওতে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, পাকিস্তানে ক্ষমতাসীন দল তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের নেতা ও পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ সহযোগী ফিরদৌস আশিক আওয়ান পিপিপি’র এমএনএ কাদির মান্দোখাইলের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় করছেন। একপর্যায়ে ফিরদৌস চড় মেরে বসেন কাদিরের গালে। আত্মরক্ষার্থে কাদিরকে নিজের দুই হাত তুলতে দেখা গেছে। এ সময় তৃতীয় একজন হস্তক্ষেপ করে তাদের থামান।

ঘটনাটি অফ-এয়ারে ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও চড় মারার ঘটনাটি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে।

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর এক বিবৃতিতে ফিরদৌস আশিক আওয়ান দাবি করেছেন, কাদির মান্দোখাইল তাকে হুমকি দিয়েছেন এবং তার বাবাকে অপমান করেছেন। আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনার পর আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

কাদির মান্দোখাইল অভিযোগ করেছেন, অনুষ্ঠানে ফিরদৌস ৩০ মিনিট ধরে কথা বললেও তাকে সুযোগ দেওয়া হচ্ছিল না। তিনি কথা বলার অনুমতি চাইলে সরকারি দলের নেতা বলেছেন, দল দুর্নীতিবাজ হওয়ার কারণে বলার কিছু থাকবে না।

তিনি আরও দাবি করেছেন, বিজ্ঞাপন বিরতির সময় তাকে চড় ও আঁচড় দিয়েছেন ফিরদৌস।

সূত্র: রিপাবলিক ওয়ার্ল্ড