কাদের মির্জার গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ-সড়ক অবরোধ, ৪৮ ঘন্টার হরতাল ঘোষণা

Advertisements

সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার নেতৃত্বে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের ওপর হামলার প্রতিবাদে তার কর্মী সমর্থক ও অনুসারীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেছে।

শনিবার (১২ জুন) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে এ ঘটনায় কাদের মির্জার সম্পৃক্ততার অভিযোগে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে কাদের মির্জার বিচার দাবি করে সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে বক্তারা তার গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, অবরোধ করে দেয়া হয়েছে বসুরহাট টু বাংলাবাজার-চাপরাশির হাটের প্রধান সড়ক এবং উপজেলার ৮ ইউনিয়নের প্রধান প্রধান সড়ক গুলো উপজেলার প্রধান বাণিজ্যিক শহর বসুরহাট থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে।

 

৪৮ ঘন্টার হরতাল ঘোষণা

সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার নেতৃত্বে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের ওপর হামলার প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের ৪৮ ঘন্টার হরতাল ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (১২ জুন) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে নিজের ফেইসবুব অ্যাকাউন্ট থেকে লাইভে এসে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের মুখপাত্র ও সেতুমন্ত্রীর ভাগনে মাহবুবুর রশীধ মঞ্জু উপজেলা আ.লীগের পক্ষ থেকে আগামী ৪৮ ঘন্টা এই হরতাল ঘোষণা করেন।

এ সময় লাইভে তার সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খান, সেতুমন্ত্রীর ভাগিনা আ.লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম রাহাত।

এ সময় মঞ্জু লাইভে, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ডুয়েল রোল প্লে করছেন বলেও অভিযোগ করেন। এই ডুয়েল রোল প্লে করে আপনি কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের নেতাকর্মীদের মান সম্মান নষ্ট করে দিয়েছেন। আমরা প্রতিবাদ করেছি। আপনি আমাদরে মাঠে নামিয়েছেন। এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে আমরাও মুখ খুলবো। তিনি কাদের মির্জা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর গ্রেপ্তার দাবি করেন।