মন খারাপের রাতে হেরেই গেল ডেনমার্ক

Advertisements

জার্মান সম্প্রচারক সংস্থা স্পোর্টস্টুডিও-র খবর সত্যি হলে, ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন নিজেই হাসপাতাল থেকে ভিডিওবার্তায় ডেনমার্ক দলে তাঁর সতীর্থদের আবার মাঠে নামতে অনুরোধ করেছিলেন। দারুণ মানসিক দৃঢ়তার পরিচয় দিয়ে ড্যানিশ খেলোয়াড়েরা মাঠে নেমেছেনও।

দারুণ সাহসের এই গল্পটা সুন্দর সমাপ্তি পেত ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটাতে শেষ পর্যন্ত ডেনমার্ক জিতে গেলে। ম্যাচের ৪০ মিনিটে হঠাৎ মুখ থুবড়ে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে হাসপাতালে যাওয়া এরিকসেনকে তাতে দারুণ উপহার দেওয়া হতো।

কিন্তু তা হয়নি, বরং উল্টোদিকে দুর্দান্ত গল্প লিখেছে এবারই প্রথম ইউরোতে সুযোগ পাওয়া ফিনল্যান্ড। কোপেনহেগেনে আজ ডেনমার্ককে ১-০ গোলে হারিয়ে ইউরো অভিষেক রাঙিয়ে দিয়েছে ফিনিশরা।

তবে ম্যাচটাকে ঘিরে মন খারাপ করা কোনো গল্প লিখতে হবে বলেই মনে হয়েছিল এরিকসেন মাটিতে লুটিয়ে পড়ার পর। ম্যাচের ৪০ মিনিটে মাঠে হঠাৎ মুখ থুবড়ে পড়ে যান এরিকসেন। মাঠে প্রায় ১৫ মিনিট চিকিৎসার পর তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। উয়েফা তখন ম্যাচ স্থগিত ঘোষণা করে।

এরপর অবশ্য ডাক্তারদের প্রাণান্ত চেষ্টার পর জ্ঞান ফেরে এরিকসেনের। উয়েফা ম্যাচটি আবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা ৩০ মিনিট থেকে শুরু করার কথা জানায়। ৪৩ মিনিট থেকে আবার ম্যাচ শুরু হয়, এরিকসেনের বদলি হিসেবে ডেনমার্ক মাঠে নামায় মাথিয়ান ইয়েনসেনকে।