করোনায় ভাড়ায় বাইক চালাচ্ছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী

Advertisements

করোনায় কাজ হারিয়ে ভাড়ায় বাইক চালাচ্ছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবি ভাইরাল হলে এ নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা চলছে। ওই আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা জানান, প্রথম দিনে তার আয় হয়েছে ১৩০ টাকা। বসে না থেকে কাজ করা এবং কোর্ট খুলে দেওয়ার দাবিতেই তার এমন উদ্যোগ।

এদিকে ছবিটি নিজেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করার পর এ নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে আইনাঙ্গনে আলোচনা চলছে। উচ্চ আদালতের এই আইনজীবী বলছেন, করোনার কারণে ১৬ মাস নিয়মিত আদালত বন্ধ থাকায় আর্থিক সংকটে পড়েন। সিনিয়রদের সহযোগিতায় এত দিন চললেও বসে না থেকে রাস্তায় নামার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা বলেন, গত ১৬ মাস ধরে কোর্ট বন্ধ রয়েছে। এতে আমার মতো অনেকেই অর্থনীতির সংকটে পড়েছে। পরে আমি বসে না থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়ি।
ভার্চুয়ালি কিছু কোর্ট চললেও তার সুবিধা পাচ্ছেন না অধিকাংশই আইনজীবী। তাই কোর্ট খোলার দাবিতে এই অভিনব উদ্যোগ তার।
তিনি আরও বলেন, কোর্ট শুরু হলে আবার কোর্টে কাজ করব। আর কোর্ট না চললে নিজেকে অলস বসিয়ে না রেখে অন্য যে কোনো কাজ করতে আমার লজ্জাবোধ হয় না।
যদিও আইনজীবীর পোশাক পরে ভাড়ায় বাইক চালানোর সমালোচনা করেছেন অনেক আইনজীবী।

Leave a Reply