কর্মজীবনকে সহজ করতে বাজারে শাওমি প্যাড ৫

Advertisements

সহজে বহনযোগ্য হওয়ায় অনেকের পছন্দের ডিভাইস এখন ট্যাবলেট কম্পিউটার। আমাদের দৈনন্দিন কর্মময় জীবনে ডেস্কটপ, ল্যাপটপের চেয়ে বাড়তি সুবিধা আর স্মার্টফোনের চেয়ে ভালো পারফরমেন্স দিতে শাওমি বাংলাদেশের বাজারে এনেছে শাওমি প্যাড ৫। চলুন জেনে নেই শাওমি প্যাড ৫ এর আদ্যোপান্ত।

ডিজাইন

ডিজাইন এর কথা বলতে শাওমি প্যাড ৫ এক কথায় অসাধারণ এবং প্রথম দেখাতেই আপনার পছন্দ হবে। স্ক্রিন-টু-বডি রেশিওর কথা হিসাব করলে শাওমি প্যাডটি দুর্দান্ত এবং এর বেজেল বাজারে থাকা অন্য প্যাড এর তুলনায় অপেক্ষাকৃত কম। শাওমি প্যাড ৫ এর ডিসপ্লে প্রায় অনেকটা ফ্রন্ট প্যানেল কভার করে।

ডিভাইসটির ব্যাক ও ফ্রেম প্যানেলে এলুমিনিয়াম ব্যবহার করা হয়েছে। শাওমি প্যাড ৫ এ রয়েছে কম্পিউটারের মত সুবিধা। শাওমি প্যাড ৫ কিবোর্ড সাপোর্ট রয়েছে। এছাড়াও স্টাইলাস সাপোর্ট থাকায় হ্যান্ডরাইটিং বা ড্রয়িং এর ক্ষেত্রে আলাদা সুবিধা পাওয়া যায়।

ডিসপ্লে

১১ইঞ্চির বড় স্ক্রিনের সাথে শাওমি প্যাড ৫ আইপিএস ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। শাওমি প্যাড ৫ এর ডিসপ্লে ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্টেড। এছাড়াও এই ডিসপ্লে এইচডিআর ১০ ও ইমেজ কোয়ালিটি ইম্প্রুভ করতে ডলবি ভিশন সাপোর্ট করে। শাওমি প্যাড ৫ এর ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন ২কে, যা ওলেড ডিসপ্লের কাছাকাছি প্রায়। ডিভাইসটিতে স্টাইলাস সাপোর্ট করার ফলে এই ট্যাব ব্যবহারের অভিজ্ঞতা হবে অসাধারণ।

প্রসেসর

শাওমি প্যাড ৫ এ আছে ৭ ন্যানোমিটারের হাই-পারফরম্যান্স কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬০ প্রসেসর। পোকো এক্স৩ প্রো ফোনটিতেও দেখা মিলবে এই প্রসেসরের। স্ন্যাপড্রাগন ৮৬০ প্রসেসরটি সাধারণ ব্যবহার থেকে শুরু করে ভারী গেমিংয়ের জন্য যথেষ্ট শক্তিশালী।

যারা বড় স্ক্রিনে গেমিং করতে ভালোবাসেন, তাদের জন্য শাওমি প্যাড ৫টি একটি আদর্শ পছন্দ। হ্যান্ডসেটটিতে রয়েছে মিইউআই ১২.৫ নির্ভর অ্যান্ড্রয়েড ১১।

ক্যামেরা

শাওমি প্যাড ৫ এর পেছনে রয়েছে একটি ১৩মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং একটি ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা যা ১০৮০ পিক্সেলে রেজুলেশন সমর্থন করে। এটি আমরা যে ভিডিও কলে থাকি সেই জগতের জন্য এটি আদর্শ৷ শাওমি প্যাড ৫ দিয়ে ফোরকে ভিডিও রেকর্ড করা সম্ভব।

ব্যাটারি

কর্মময় দিনে ভালো পারফরম্যান্স দিতে প্রয়োজন বিশাল ব্যাটারি। সে দিকটা মাথায় রেখে ডিভাইসটিতে দেয়া হয়েছে ৮৭২০মিলিএম্প ও ৩৩ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড ব্যাটারি। এ ছাড়া বক্সে রয়েছে ২২.৫ ওয়াটের চার্জার।

অন্যান্য

শাওমি প্যাড ৫ এ কোনো সিম স্লট না থাকায় সেলুলার সুবিধা থাকছে না। সেক্ষেত্রে ইন্টারনেট ব্যবহার করার একমাত্র মাধ্যম হলো ওয়াইফাই। শাওমি প্যাড ৫ এ ডলবি এটমোস কোয়াড স্পিকার ও হাই-রেঞ্জ অডিও সার্টিফিকেশন রয়েছে।

দাম

শাওমি প্যাড ৫ দুটি কালার কসমিক গ্রে এবং পিয়ারেল হোয়াইট ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাচ্ছে দেশের সব অথরাইজড শাওমি স্টোরে।

শাওমি প্যাড ৫ এর ৬জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যাবে ৩০,৯৯৯টাকায়, ৬ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যাবে ৩৩,৯৯৯টাকায়।

Leave a Reply